বৃহস্পতিবার ২৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ ৯ ডিসেম্বর, ২০২১ বৃহস্পতিবার

ফতুল্লায় গ্যাসলাইন বিস্ফোরণে এবার প্রাণ গেল ঝুমা রানীর

অনলাইন ডেস্ক:- নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় ফ্ল্যাটে গ্যাসলাইন বিস্ফোরণের ঘটনায় এবার মারা গেলেন দগ্ধ ঝুমা রানী (১৯)। তার শরীরের ৫০ শতাংশ দগ্ধ হয়েছিল। 

সোমবার সকালে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন থেকে তার মৃত্যু হয়। এ নিয়ে তিন নারীর মৃত্যু হলো। আইসিইউতে ঝুমার মা তুলসী রানী চিকিৎসাধীন। তার শরীরে ২৫ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে।

তুলসী রানীর ছেলে রুবেল বলেন, গত শুক্রবার ভোরে ফতুল্লার লালখাঁর মোড় এলাকায় মোক্তার মিয়ার পাঁচতলা বাড়ির নিচতলার একটি ফ্ল্যাটে জমে থাকা গ্যাস বিস্ফোরণ হয়। এতে ওই বাসার নিচতলার একটি ফ্ল্যাটে আমার মা তুলসী রানী ও বোন ঝুমা রানীকে নিয়ে ভাড়ায় বসবাস করতাম। বিস্ফোরণে আমার পরিবারে মা-বোনসহ তিনজনই দগ্ধ হয়েছি। আমাদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি দগ্ধ হয়েছে বোন ঝুমা রানী। 

তিনি আরও বলেন, নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আরিফা জহুরা আমার মা ও বোনের চিকিৎসার জন্য ২০ হাজার টাকা সরকারি অনুদান দিয়েছিলেন। সেই টাকায় চিকিৎসা চলছে। 

ওই বাড়িতে বিস্ফোরণে আশপাশের আরও তিনটি বাড়ির দেয়াল ভেঙে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। এ ঘটনায় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সাত সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এলাকাবাসী জানান, বিস্ফোরণে মোক্তার মিয়ার পাঁচতলা বাড়িটির নিচতলায় ৫টি ঘরের দেওয়াল চূর্ণ হয়ে যাওয়ায় অনেকটা নড়বড়ে হয়ে গেছে। ভবনের পিলারগুলোর রড বেরিয়ে পড়েছে। আশঙ্কা করা হচ্ছে, যে কোনো সময় ভবনটি হেলে পড়ে আরও হতাহতের ঘটনা ঘটতে পারে।

বিষেরবাঁশী.কম /ডেস্ক / রূপা

Categories: নারায়ণগঞ্জের খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.