সোমবার ৭ আষাঢ়, ১৪২৮ ২১ জুন, ২০২১ সোমবার

রাজশাহীতে ট্রেন চলাচল বন্ধ

অনলাইন ডেস্ক :-করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল মন্ত্রণালয় রাজশাহীতে করোনাভাইরাস সংক্রমণ সারাদেশে ছড়িয়ে পড়া রোধে শুক্রবার (১১ জুন) মধ্যরাত থেকে রাজশাহীর সব যাত্রীবাহী ট্রেন সাত দিন বন্ধ থাকবে। 

বৃহস্পতিবার (১১ জুন) রাতে বাংলাদেশ রেলওয়ে অধিদপ্তরের পরিচালক (জনসংযোগ) মোহাম্মদ সফিকুর রহমান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়েছে, বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় করোনাভাইরাস (কেভিড-১৯) সংক্রমণের বিস্তার রোধকল্পে ১১ জুন শুক্রবার মধ্যরাত হতে ১৭ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত রাজশাহী থেকে বিভিন্ন গন্তব্যে চলাচলকারী যাত্রীবাহী সব ট্রেন বন্ধ থাকবে।

এর আগে করোনাভাইরাসে সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় রাজশাহীতে সাত দিনের লকডাউন ঘোষণা করা হয়। শুক্রবার (১১ জুন) বিকেল ৫টা থেকে ১৭ জুন রাত ১২টা পর্যন্ত রাজশাহী সিটি করপোরেশন এলাকায় সর্বাত্মক কঠোর লকডাউন ঘোষণা করে প্রশাসন।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত রাজশাহীর সার্কিট হাউসে প্রশাসনের কর্মকর্তাদের জরুরি বৈঠকে এ লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পরে এ বিষয়ে ব্রিফ করেন রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার হুমায়ুন কবীর।

তিনি বলেন, জেলায় পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার ও মৃত্যুহার বিশ্লেষণ করে লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। লকডাউনের সময় গণপরিবহন ও দোকানপাটসহ বন্ধ থাকবে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ, নাটোর ও নওগাঁ থেকে কোনো যানবাহন প্রবেশ করতে পারবে না, রাজশাহী থেকেও কোনো যানবাহন জেলার বাইরে যাবে না। তবে রোগী ও অন্য জরুরি সেবাদানকারীর ক্ষেত্রে এ নিয়ম প্রযোজ্য নয়।

এদিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে রাজশাহীর আটজন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের ছয়জন ও নাটোরের একজন।

বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে শুক্রবার সকাল ৬টা পর্যন্ত বিভিন্ন সময় তারা মারা যান বলে জানান হাসপাতালের উপপরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস।

তিনি জানান, মৃত ১৫ জনের মধ্যে সাতজন করোনা শনাক্ত হওয়ার পর মারা যান। বাকিরা মারা যান নমুনা পরীক্ষার আগে চিকিৎসাধীন অবস্থায়। আর করোনা শনাক্ত সাতজনের মধ্যে রাজশাহীর চারজন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের দুজন ও নাটোরের একজন।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজের উপপরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস জানান, গত ১১ দিনে (১ জুন সকাল ৬টা থেকে ১১ জুন সকাল ৬টা পর্যন্ত) এ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে মারা গেছেন ১০৮ জন। এর মধ্যে ৬৩ জনই মারা গেছেন করোনা শনাক্ত হওয়ার পর। বাকিরা উপসর্গ নিয়ে মারা যান।

বিষেরবাঁশী.কম/ডেস্ক/আয়েশা

Categories: শীর্ষ সংবাদ

Leave A Reply

Your email address will not be published.