বৃহস্পতিবার ৩০ বৈশাখ, ১৪২৮ ১৩ মে, ২০২১ বৃহস্পতিবার

নারায়ণগঞ্জে হেফাজতের ৪ নেতা রিমান্ডে

অনলাইন ডেস্ক:– নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও রয়েল রিসোর্টে মামুনুল হকের নারী কেলেঙ্কারির ইস্যুতে হামলা, ভাঙচুর ও মহাসড়কে নাশকতার দুই মামলায় গ্রেফতার মাওলানা ইকবালসহ হেফাজতের চার নেতার প্রত্যেককে তিনদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

সোমবার (১০ এপ্রিল) বিকেলে নারায়ণগঞ্জের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আহমেদ হুমায়ুন কবীরের আদালত এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

রিমান্ড মঞ্জুরের বিষয়টি নিশ্চিত করে নারায়ণগঞ্জের আদালত পুলিশের পরিদর্শক মো. আসাদুজ্জামান সময়নিউজকে বলেন, দুইটি মামলায় আসামিদের সাতদিন করে ১৪ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছিল। আদালত শুনানি শেষে একটি মামলায় দু’দিন করে এবং অপর মামলায় একদিন করে মোট তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

রিমান্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- সোনারগাঁও উপজেলা খেলাফত মজলিসের সভাপতি মাওলানা ইকবাল হোসেন, মাওলানা আমির মহিউদ্দিন, সোনারগাঁও উপজেলা হেফাজত ইসলামের সেক্রেটারী মাওলানা শাহজাহান ওরফে শিবলি এবং সহ-সভাপতি মাওলানা মোয়াজ্জেম হোসেন।

এর আগে, গত ৩ এপ্রিল সোনারগাঁ রয়েল রিসোর্টে মামুনুল হকের নারী কেলেঙ্কারি ইস্যুতে মহাসড়কে তাণ্ডবের ঘটনায় পুলিশের দায়ের করা দুইটি মামলায় হেফাজতের এই চার নেতাকে গ্রেফতার করে র‌্যাব।  রোববার মধ্যরাতে রাজধানীর জুরাইন এলাকায় বিশেষ অভিযান চালিয়ে র‌্যাব-১১ ব্যাটালিয়ানের একটি দল তাদের গ্রেফতার করে। সোমবার সকালে র‌্যাব আসামিদের জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন।

র‌্যাব-১১ সিনিয়র সহকারি পরিচালক জসীম উদ্দিন চৌধুরি সময়নিউজকে জানান, গ্রেফতারদের খেলাফত মজলিসের সভাপতি মাওলানা ইকবাল হোসেন একটি মামলার প্রধান আসামি। অপর মামলার প্রধান আসামি হলেন হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম-মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক।

র‌্যাবের এই কর্মকর্তা আরও জানান, গত ৩ এপ্রিল সোনারগাঁওয়ে রয়েল রিসোর্টে নারী কেলেংকারির ঘটনায় মামুনুল অবরুদ্ধ হলে আসামি ইকবাল হোসেন মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়ে হেফাজতের লোকজন জড়ো করেন। পরে তার নেতৃত্বে হামলা ভাঙচুর ও তাণ্ডব চালানো হয়। মামলার অধিক তদন্তের জন্য গ্রেফতার আসামিদের সোমবার সকালে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম জানান, মামলার অধিক তদন্তের জন্য আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদের প্রয়োজন। এ কারণে তাদেরকে রিমান্ডের আবেদন করে আদালতে পাঠানোর হয়েছিল।

নারায়ণগঞ্জে হেফাজতের হরতাল কর্মসূচি ও দলটির যুগ্ম-মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক নারীসহ অবরুদ্ধ হওয়ার পর হেফাজত নেতা-কর্মীদের তাণ্ডব ও সহিংসতার ঘটনায় এ পর্যন্ত ১৭টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ সব মামলায় এই চারজনসহ গ্রেফতার করা হয়েছে ৬৭ জনকে।

বিষেরবাঁশী.কম / ডেস্ক / ব্রিজ

Categories: নারায়ণগঞ্জের খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.