রবিবার ২২ ফাল্গুন, ১৪২৭ ৭ মার্চ, ২০২১ রবিবার

সিরিয়াল প্রেমিক নাসির গ্রেফতার

অনলাইন ডেস্ক:- ধনাঢ্য সুন্দরী নারীরাই এই মডার্ন প্রতারকের প্রধান টার্গেট! প্রেম যেন তার নেশা,আর একইসাথে সহজে ইনকাম। প্লেবয় নাসিরের অভিনব প্রতারণার ফাঁদে পা দিয়ে ইতোমধ্যে বহু যুবতি সর্বস্ব হারিয়েছে! ব্যবহার করতেন শতাধিক সিম কার্ড, পোশাকে চালচলনে রাজকীয় ভাব, নিজেকে কখনো এসএসএফ’র সহকারী পরিচালক আবার কখনো বড় কোম্পানির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা বলে দেন পরিচয়। ধনাঢ্য পরিবারের মেয়েরাই ছিল তার প্রধান টার্গেট। উদ্দেশ্য বড় অঙেকর টাকা হাতিয়ে নেয়া।

তবে শেষ রক্ষা হয়নি। সহযোগীসহ ধরা পড়লেন পুলিশের হাতে। ২৯ বছরের যুবক নাসিরুদ্দিন বুলবুলের প্রথম টার্গেট ধনাঢ্য পরিবারের মেয়েদের ভুলিয়ে ভালিয়ে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলা। ভিন্ন ভিন্ন পরিচয়ে প্রতারণা চালাতো সে। একেক সময় ব্যবহার করতো একেক পরিচয়। কখনো সে বড় ব্যবসায়ী কখনো বা বড় চাকুরিজীবী। কখনো এসএসএফ’র সহকারী পরিচালক আবার কখনো বড় কোম্পানির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা। এভাবে প্রতারণা করে আসছিলেন পাবনার নাসির উদ্দিন বুলবুল।

নানা ছলে বলে হাতিয়ে নিতেন অর্থ। বুলবুলের প্রতারণার আরেক কৌশল ছিল টাকার বিনিময়ে চাকুরী দেওয়ার প্রলোভন দেখানো। জমিজমার বিবাদ করিয়ে দেয়ার কথা বলেও দুপক্ষ থেকে টাকা হাতিয়ে নিত সে। তার কাছে থাকত এসএসএফ* এর সহকারী পরিচালকের একটি ভুয়া পরিচয়পত্র। এছাড়া বিভিন্ন আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানের পরিচয়পত্রও থাকত তার পকেটে। সুযোগ বুঝে এগুলোর ব্যাবহার করে সে। গত রোববার বিকেলে রাজধানীর মিরপুর এলাকা থেকে সহযোগী সহ তাকে আটক করে পুলিশ।

তেজগাঁও বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) হারুন অর রশিদ তার নিজ কার্যালয়ে এ বিষয়ে বলেন, আমরা তার কাছ থেকে অনেক সিম কার্ড পেয়েছি।মেয়ের বাবারা যখন শুনতে পারত যে বুলবুল এসএসএফ* এর সহযোগী পরিচালক তখন তারা তাদের মেয়েদের বুলবুলের সাথে বিয়ে দেয়ার জন্য রীতিমতো পাগল হয়ে যেতেন। যত বার কোনো মেয়ে তার সাথে দেখা করত তখন সে বিভিন্ন ব্যান্ডের ঘড়ি,সানগ্লাস, ভাড়ার কোনো গাড়ি নিয়ে যেত।এভাবেই সে বড়লোকের মেয়েদের কাছ থেকে অনেক টাকা হাতিয়ে নিত। নাসির আসলে একজন প্রতারক। দীর্ঘদিন ধরে প্রতারণা করে আসছিল এই নাসির।

নাসিরের বাসায় তল্লাশি চালিয়ে পুলিশ বিশ্বসেরা নামিদামি ২৯ টি ব্যান্ডের ঘড়ি,, অসংখ্য সিম কার্ড,, ভুয়া পরিচয়পত্র,,একগুষ্টি সানগ্লাস,, অনেক গুলো ক্রেডিট কার্ড,,ও মেয়েদের নামে করা বিভিন্ন ব্যাংকের চেকবই পায়। ফটোশপ ব্যাবহার করে প্রধানমন্ত্রীর সাথে ছবিও বসিয়েছে সে। এমনকি তিনি সেটা শিকারও করেছেন। তাকে খুব তাড়াতাড়ি রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলেন জানান ডিসি।

বিষেরবাঁশী.কম/ডেস্ক/ব্রিজ

Categories: অপরাধ ও দুর্নীতি

Leave A Reply

Your email address will not be published.