বৃহস্পতিবার ৩০ বৈশাখ, ১৪২৮ ১৩ মে, ২০২১ বৃহস্পতিবার

তাবিজ আনতে যেয়ে মাজারের খাদেমের হাতে ধর্ষণের শিকার মা

অনলাইন ডেস্ক:- ছেলের জন্য তাবিজ আনতে গিয়ে খানকা শরীফের তত্ত্বাবধায়কের ‘লালসার শিকার’ হয়ে অন্তঃসত্ত্বা হয়েছেন এক প্রবাসীর স্ত্রী।

আর এ ঘটনাটি ঘটেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলায়।

উক্ত ঘটনায় অভিযুক্ত মাওলানা সিরাজুল ইসলামকে (৪৮) বৃহস্পতিবার (৭ই জানুয়ারি) সন্ধ্যার দিকে আটক করা হয়েছে। এ বিষয়ে পুলিশ বলছে, প্রাথমিকভাবে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে।

হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলার বড়গাঁ গ্রামের মৃত আশিকুল ইসলামের ছেলে অভিযুক্ত সিরাজুল।

এ বিষয়ে আমিনুর রশিদ নবীনগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জানান, ‘নবীনগর উপজেলার ভোলাচং গ্রামের বাসিন্দা সেই প্রবাসীর স্ত্রী তার ছেলের জন্য তাবিজ আনতে শ্রীরামপুর গ্রামের আবু উলাইয়া খানকা শরীফ যান। সেখানকার তত্ত্বাবধায়ক মাওলানা সিরাজুল ইসলাম মানুষজনকে বিভিন্ন রোগের জন্য তাবিজ দিতেন এবং ঝাড়ফুঁক করতেন। তাবিজের জন্য প্রবাসীর স্ত্রীরও তখন খানকা শরীফে আসা-যাওয়া ছিল।’

উক্ত প্রসঙ্গে ওসি আরো বলেন যে, ‘খানকা শরীফের তত্ত্বাবধায়কের লালসার শিকার হয়ে প্রবাসীর স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়েছেন। স্থানীয়দের মধ্যে এমন কথাবার্তা শুরু হলে বৃহস্পতিবার সিরাজুলকে আটক করে পুলিশ। প্রাথমিকভাবে এ ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে।’

বিষেরবাঁশী.কম / ডেস্ক / রূপা

Categories: অপরাধ ও দুর্নীতি,সারাদেশ

Leave A Reply

Your email address will not be published.