শনিবার ৯ আষাঢ়, ১৪২৫ ২৩ জুন, ২০১৮ শনিবার

চলন্ত বাসে হিন্দু তরুণীকে ধর্ষণ, আসামি রুবেল নিহত

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: ঢাকার সাভার উপজেলায় আশুলিয়ায় চলন্ত বাসে হিন্দু তরুণীকে ধর্ষণ,ডাকাতি ও চালককে হত্যার ঘটনায় আসামি রুবেল পুলিশের গুলিতে নিহত হয়েছে। আজ শুক্রবার ভোর ৪টার দিকে আশুলিয়ার টঙ্গাবাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রুবেল (২৫) টাঙ্গাইল জেলার ঘাটাইল থানার লক্ষীন্দর গ্রামের লাল মিয়ার ছেলে।

এ ঘটনায় পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) উপপরিদর্শক (এসআই) ও তিন কনস্টেবল আহত হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। এ ছাড়া ঘটনাস্থল থেকে গুলি ও আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

গত ১৩ ফেব্রুয়ারী ভোরে টাঙ্গাইল থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে আসা ইনসাফ পরিবহনের ‘ধলেশ্বরী’ নামের একটি বাসে ধর্ষণ, ডাকাতি ও চালককে হত্যার ঘটনাটি ঘটে।

আশুলিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খোরশেদ আলম জানান, ঘটনার দিন টাঙ্গাইল জেলার মির্জাপুর এলাকায় পৌছালে যাত্রীবেশে ১৩ ডাকাত বাসে ওঠে। বাসটি নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কে ওঠামাত্র ডাকাতরা লুটপাট শুরু করে।এ সময় হিন্দু এক তরুণীকে তার মায়ের সামনেই ধর্ষণ করে ডাকাতরা।

এ সময় চালকের আসন থেকে নেমে এসে প্রতিবাদ জানালে ডাকাতদের ছুরিকাঘাতে মারা যান বাস চালক চালক শাহজাহান মিয়া। গুরুতর আহত হন হেলপার বাদশা মিয়া।

এ ঘটনায় আটক করা হয় ১২ ডাকাতকে। আদালতে দেয়া জবানবন্দীর ভিত্তিতে মূল হোতা হিসেবে নাম উঠে আসে রুবেলের।

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও জানান, রুবেল আশুলিয়ার টঙ্গাবাড়িতে অবস্থান করছেন- এমন তথ্যের ভিত্তিতে শুত্রবার ভোরে অভিযান চালায় ডিবি।

আশুলিয়া থানার এসআই কালাম আজাদ জানান,পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সহযোগীদের নিয়ে রুবেল পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় দুই পক্ষের গোলাগুলিতে গুরুতর আহত হয় রুবেল। আশঙ্কাজনক অবস্থায় রুবেলকে সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

বিষেরবাঁশী.কম/ সংবাদদাতা/ হীরা

Categories: অপরাধ ও দুর্নীতি,সারাদেশ

Leave A Reply

Your email address will not be published.