শনিবার ৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ ১৭ নভেম্বর, ২০১৮ শনিবার

‘বুঝে ওঠার আগেই স্যারের শরীর রক্তে ভিজে যায়’

শনিবার বিকাল ৫টা ৩৫ মিনিটের দিকে সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চে এক অনুষ্ঠানে অধ্যাপক ড. জাফর ইকবালকে ছুরিকাঘাত করেন এক যুবক। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হয়। হামলার সময় কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই তার শরীর রক্তে ভিজে যায়।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত শিক্ষার্থীরা জানান, স্যার মুক্তমঞ্চে বসেছিলেন। সামনে একটি রোবট প্রতিযোগিতা হচ্ছিল। হঠাৎ এক যুবক এসে স্যারের মাথার পেছনে ছুরি দিয়ে আঘাত করে। কিছু বুঝে ওঠার আগেই স্যারের শরীর রক্তে ভিজে যায়। মুক্তমঞ্চে পুলিশ বেষ্টনীর মধ্যেই স্যারের ওপর এ হামলা হয়।

এদিকে অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালকে শনিবার সন্ধ্যা ৬টা ২৭ মিনিটে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওটিতে নিয়ে যাওয়া হয়।

তাদের মধ্যে এক শিক্ষার্থী জানান, হামলার পরপরই তিনি স্যারের সঙ্গে কথা বলেছেন। স্যার জানিয়েছেন- তিনি ওকে আছেন। নিজেকে ধরে রাখতে পারবেন। ঘটনার পরপরই শিক্ষার্থীরা হামলাকারীকে আটক করে গণপিটুনি দেয়। পরে শিক্ষকরা উদ্ধার করে তাকে শিক্ষাভবনে (এ) আটকে রেখেছেন।

সিলেট মেট্রোপলিটনের এডিসি আবদুল ওহাব বলেন, ‘অধ্যাপক জাফর ইকবালকে ছুরিকাঘাতের ঘটনায় এক যুবককে আটক করা হয়েছে।’ তবে তাৎক্ষণিকভাবে তার নাম-পরিচয় জানাতে পারেননি তিনি।

Categories: অপরাধ ও দুর্নীতি

Leave A Reply

Your email address will not be published.