রবিবার ৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ ১৮ নভেম্বর, ২০১৮ রবিবার

‘খালেদা জিয়া কারাগারে গেলেও দেশে প্রভাব পড়েনি’

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সংসদ সদস্য পঙ্কজ দেবনাথ বলেছেন, এতিমের টাকা মেরেছেন দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) মামলা করেছে, বিএনপির আইনজীবীরা আদালতে মামলা মোকাবেলা করেছেন। দুর্নীতি প্রমাণ হয়েছে বিধায় আদালত খালেদা জিয়ার পাঁচ বছরের সাজা দিয়েছেন। সাজা দেওয়ার ব্যাপারে আওয়ামীলীগকে কেন দোষারোপ করা হচ্ছে।

তিনি প্রশ্ন তোলেন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে আওয়ামীলীগের আমলে কি ওই মামলাটি হয়েছিলো।

সাবেক তত্বাবধায়ক সরকারের আমলের দুর্নীতি মামলা চললো নয় বছর। বেগম জিয়া মামলা থেকে রেহাই পেতে সময় ক্ষেপন করতে করতে নয় বছর অতিক্রম করেও রক্ষা করতে পারলেন না নিজেকে। অপরাধ করেছেন বলেই তো সাজা হয়েছে।

শনিবার দুপুরে নীলফামারী শিল্পকলা অডিটোরিয়ামে জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের কর্মী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

পঙ্কজ বলেন, আদালত খালেদাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন, দেশবাসী খুশি হয়েছেন। মানুষের মাঝে কোন প্রভাব পড়েনি। বিএনপির নেতা কর্মীরাও মাঠে ছিলো না। এতেই প্রমাণ হয় খালেদাকে মানুষ ভুলে গেছে।
কারণ দেশের মানুষ আওয়ামীলীগের উন্নয়নের সাথে রয়েছেন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননত্রেী শেখ হাসিনার উপর আস্থা রেখেছেন।

আগামী নির্বাচনে ঐক্যবদ্ধ থেকে আবারো নৌকা মার্কার প্রার্থীদের বিজয়ী করে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী বানিয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে পাশে থাকার আহবান জানান।

খালেদার রায়কে কেন্দ্র করে বিএনপি ষড়যন্ত্র এবং জনগণকে বিভ্রান্ত করার কৌশল নিয়েছে মন্তব্য করেন তিনি আরো বলেন, এজন্য নেতা কর্মীদের সচেতন হতে হবে। বোঝাতে হবে বেগম খালেদার দুর্নীতির বিষয়ে।

সমাবেশে বিশেষ অতিথি জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মমতাজুল হক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আহসান রহিম মঞ্জিল, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবুজার রহমান, আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম আজিম, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক এনাম এ খোদা জুলু বক্তব্য দেন।

জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কামরুজ্জামান কামরুলের সভাপতিত্বে সমাবেশ পরিচালনা করেন সাধারণ সম্পাদক দীপক চক্রবর্তী।

বিষেরবাঁশী.কম/ সংবাদদাতা/ হীরা

Categories: রাজনীতি,সারাদেশ

Leave A Reply

Your email address will not be published.