বুধবার ৪ আশ্বিন, ১৪২৫ ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ বুধবার

নারীদের কাঁদিয়ে টাকা পান পুরুষরা!

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: নারীদের কাঁদানোর জন্যই পয়সা দেওয়া হয় পুরুষদের! আর মজার ব্যাপার হলো সেই পুরুষরা সবাই সুদর্শন। কেননা, সুদর্শন পুরুষদের প্রতিই নাকি নারীরা বেশি আবেগপ্রবণ হয়।নারীকে কাঁদানো যেকোনো পুরুষের জন্য নিশ্চয়ই কোনো কাজের কথা নয়। তবে উদ্যোক্তা হিরোকি তেরাই এটাকে কিছু মনেই করেন না। শত হলেও এর জন্য টাকা পান তিনি।

শুধু তিনিই নন, তার সঙ্গে এই কাজ করছেন আরো কয়েকজন। শুনতে অবাক লাগলেও যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনে এমনই এক অদ্ভুত ব্যবসা করছেন হিরোকি তেরাই। ১১টি বইয়ের লেখক তেরাই ২০১৫ থেকে এই ব্যবসা করছেন। হ্যাঁ, কান্নার সেবা দিয়ে থাকে তার এই সংস্থা। প্রতিষ্ঠানটির কর্মীরা নারীদের ‘কান্নার খোঁজে’ নামে একটি থেরাপি দিয়ে থাকেন।

তাদের মতে, কান্নার ফলে যাবতীয় দুঃখ, হতাশা, ক্লান্তি থেকে বেরিয়ে আসতে পারেন নারীরা। অনেক গবেষণার পর তেরাই তার নিজস্ব এক পদ্ধতি আবিষ্কার করেন, যার ফলে তার কাছে আসা গ্রাহকদের কাঁদানো যায়। তেরাইয়ের এই পদ্ধতিটিও মজার। কাঁদানোর জন্য তিনি বাছাই করেন সুদর্শন পুরুষদের সম্পর্কে একটি প্রতিবেদন অনুযায়ী, সুদর্শন পুরুষদের প্রতি নারীদের আবেগীয় যোগাযোগ দ্রুত হয়, যার ফলে নারীরা দ্রুত আবেগী হয়ে পড়ে; যা তাদের কাঁদতে সাহায্য করে। তবে তেরাইয়ের বেশির ভাগ গ্রাহকই বিবাহবিচ্ছেদের শিকার নারী।

বিষেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/হৃদয়

Categories: চিত্র-বিচিত্র

Leave A Reply

Your email address will not be published.