বুধবার ৭ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ ২১ নভেম্বর, ২০১৮ বুধবার

কাউন্ট ডাউন রহমতউল্লা মুসলিম ইন্সটিটিউট : বাকী আর মাত্র ২৭ দিন

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: শহরের দুই নাম্বার রেলগেট সংলগ্ন ‘রহমতউল্লা মুসলিম ইন্সটিটিউট ভবনটি’ ভেঙ্গে ফেলার প্রস্তুতি চূড়ান্ত।মেয়র ডা.সেলিনা হায়াৎ আইভীর ঘোষণা বাস্তবায়িত হলে

Image may contain: one or more people, people walking and outdoor
দুই নং রেলগেটের দঃক্ষিণ পাশের দৃশ্যপট বদলে যাবে। গত ৯ জানুয়ারি মঙ্গলবার নবনির্মিত জিমখানা লেকপারের স্থায়ী উন্মুক্ত মঞ্চে দাঁড়িয়ে ‘জনতার মুখোমুখি’ অনুষ্ঠানে মেয়র ডা.সেলিনা হায়াৎ আইভী ঘোষণা দেন,”আগামী এক মাসের মধ্যে অবৈধভাবে দাঁড়িয়ে থাকা ‘রহমতউল্লাহ মুসলিম ইন্সটিটিউট ভবনটি’ ভেঙ্গে দেবো। শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবৈধ এ ভবনটি দাঁড়িয়ে থাকতে পারে না।”

Image may contain: outdoor
মেয়র অভিযোগ করে বলেন, তৎকালীন পৌরসভার মাধ্যমে রাজউক পাশেই ২৪ শতাংশ জায়গার উপর একটি বহুতল ভবন ‘রহমতউল্লাহ মুসলিম ইন্সটিটিউটের জন্য নির্মাণ করে দিয়েছে। তাঁরা সেখানে যাচ্ছেন না। বহুদিন ধরে অনুরোধ করে আসলেও আমার কথার কর্ণপাত করছেন না।

আপনারা জানেন, ইতোমধ্যে আলী আহমেদ চুনকা সিটি পাঠাগার ও মিলনায়তনের পাশের ‘বিনোদন সুপার মার্কেট ও বিএনপি অফিস ভেঙ্গে দিয়েছি। সেখানে নতুন প্রজেক্টের কাজ শুরু হয়েছে। জনগণের স্বার্থে সকল অবৈধ স্থাপনা উদ্ধারের সংকল্প নিয়েছি। এরই ধারাবাহিতায় আগামী এক মাসের মধ্যে রহমতউল্লাহ মুসলিম ইন্সটিটিউট ভবন ভেঙ্গে দেব”।
উল্লেখ্য, মেয়র আইভীর প্রস্তাবিত ও অসমাপ্ত প্রকল্পগুলোর কাজ সম্পন্ন হলে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের আওতাধীন দু’পারের পুরো চিত্র বদলে এক তিলোত্তমা নগরীতে রূপান্তরিত হবে বলে সুধী মহলের অভিমত।

Posted by সুভাষ সাহা on Friday, January 12, 2018

বিষেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/হৃদয়

Categories: নারায়ণগঞ্জের খবর,সারাদেশ

Leave A Reply

Your email address will not be published.