বুধবার ১২ বৈশাখ, ১৪২৫ ২৫ এপ্রিল, ২০১৮ বুধবার

অজিদের সঙ্গে পারলো না ইংলিশরা

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: সিডনিতে অ্যাশেজের শেষ টেস্ট ড্র করতে ব্যাট হাতে ভাল কিছু করার প্রয়োজন ছিল ইংল্যান্ডের। কিন্তু পেটের সংক্রমণে আক্রান্ত ইংলিশ অধিনায়ক জো রুট আহত অবসর হয়ে মাঠ ছাড়ার পর বাকি ব্যাটসম্যানরা তেমন ব্যাটিং করতে পারেননি। পানীয় বিরতির পর প্রথম বলেই শেষ ব্যাটসম্যান জেমস অ্যান্ডারসন উইকেট হারান। তাতে সোমবার ইনিংস ও ১২৩ রানে হার মেনে নিতে হলো ইংল্যান্ডের। ঘরের মাটিতে অস্ট্রেলিয়া চলতি অ্যাশেজ জিতেছে আগেই। শেষ টেস্টটাও জিতে জয়ের ব্যবধান বাড়িয়ে নিলো ৪-০ তে।

৪ উইকেটের বিনিময়ে ৯৩ রান নিয়ে সিডনি টেস্টের শেষ দিনে ব্যাটিং শুরু করে ইংল্যান্ড। সংক্রমণ এতটাই তীব্র ছিল যে, আগের দিনের অপরাজিত ব্যাটসম্যান রুটকে হাসপাতালে যেতে হয়েছিল। তাই সকালে ব্যাট করতে নামেননি। তার পরিবর্তে মঈন আলি নামেন ব্যাটিংয়ে।

দলীয় ১২১ রানে মঈন আউট হলে ইংলিশরা দিনের প্রথম উইকেট হারায়। এরপর রুট নামেন ব্যাট হাতে। প্রথম ইনিংসের পর এ ইনিংসেও নিজের হাফসেঞ্চুরি পূর্ণ করেন তিনি। লাঞ্চবিরতির আগে ১৬৭ বলে ৫৮ রান করেন। আর দলের সংগ্রহ ছিল ৫ উইকেটে ১৪৪ রান।

তবে লাঞ্চের পর আর ব্যাট করতে নামেননি রুট। কোন রান যোগ না করেই ফিরে যান উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান জনি বেয়ারেস্টো। লাঞ্চের পর ৯ উইকেটে ১৮০ রান নিয়ে পানীয় বিরতিতে যায় ইংল্যান্ড। কিন্তু বিরতির পর প্রথম বলেই অ্যান্ডারসনের উইকেট তুলে নেন অজি পেসার জশ হ্যাজলউড। আর তাতেই নিশ্চিত হয় অস্ট্রেলিয়ার ইনিংস ও ১২৩ রানের ব্যবধানে জয়।

কামিন্স ৩৯ রান চার উইকেট পান। আর ডানহাতি স্পিনার নাথান লায়ন পান ৫৪ রানে ৩ উইকেট। দুই ইনিংস মিলিয়ে ৮ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা হন কামিন্স। ২৩ উইকেট নিয়ে এই অ্যাশেজের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারিও এই ডানহাতি পেসার। সিরিজসেরার পুরস্কার পান অজি অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ। ৫ টেস্টের ৭ ইনিংসে ১৩৭.৪০ গড়ে তিনি করেছেন ৬৮৭ রান।

বিষেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/হৃদয়

Categories: খেলাধূলা

Leave A Reply

Your email address will not be published.