রবিবার ৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ ১৮ নভেম্বর, ২০১৮ রবিবার

তথ্যপ্রযুক্তিতে তৈরি হবে ৪০০০ দক্ষ জনশক্তি : পলক

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: ভবিষ্যৎ প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে দেশকে এগিয়ে নিতে চারটি বিশেষ ক্ষেত্রে চার হাজার দক্ষ জনশক্তি তৈরির পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। তথ্যপ্রযুক্তি খাতের প্রদর্শনী ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডের তৃতীয় দিন গতকাল শুক্রবার ‘ই-গর্ভনমেন্ট মাস্টার প্ল্যান ফর ডিজিটাল বাংলাদেশ’ সেশনে অংশ নিয়ে তিনি এ কথা জানান। এই চারটি বিশেষ ক্ষেত্র হলো-সাইবার সিকিউরিটি, আর্টিফিশিয়াল ইনটেলিজেন্স, বিগ ডেটা অ্যানালিটিকস এবং ইন্টারনেট অব থিংস।

বতর্মান প্রজন্মকে ভবিষ্যতের প্রযুক্তিগত পরিবর্তনের সঙ্গে খাপ খাওয়ানোর মতো করে গড়ে তুলতে একটি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট স্থাপন করার পরিকল্পনার কথা জানিয়ে পলক বলেন, একটি সেন্টার অব এক্সিলেন্স আমরা স্থাপন করতে চাই, যেখানে চারটি বিশেষ ক্ষেত্রে আমাদের দক্ষ জনবল তৈরি করা হবে। এসব ক্ষেত্রে অন্তত চার হাজার এক্সপার্ট তৈরি করব ২০২১ সালের মধ্যে, যার মধ্যে দিয়ে আমরা সারা বিশ্বের কাছে জানান দেব, উই আর রেডি ফর টুমরো।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমাদের ছেলে-মেয়েরা যেন রোবট তৈরি করতে পারে, রোবটকে প্রোগ্রাম বা অপারেট করতে পারে, সেভাবে তৈরি করতে হবে। হয়তো রোবটের বিপ্লব আমরা থামাতে পারব না, রোবটকে নিয়ন্ত্রণ করার মতো যোগ্যতাসম্পন্ন প্রজন্ম আমরা গড়ে তুলতে পারব।

তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বাংলাদেশের সাম্প্রতিক অগ্রগতির চিত্র তুলে ধরে পলক বলেন, বর্তমানে প্রায় ৪০ শতাংশ সরকারি সেবা অনলাইনে দেওয়া হচ্ছে। ২০২১ সাল নাগাদ তা ৯০ শতাংশে নিয়ে যেতে চায় সরকার। দেশে সাড়ে পাঁচ হাজারের বেশি ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারে ই-সার্ভিস দেওয়া এবং প্রতিটি ইউনিয়নকে অপটিক্যাল ফাইবারের আওতায় নিয়ে আসার উদ্যোগের কথাও তিনি বলেন।

বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক স্বপন কুমার সরকারের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বাংলাদেশে কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত অন সিওং ডু এ পর্বে বক্তব্য দেন।

বিষেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/হৃদয়

Categories: বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

Leave A Reply

Your email address will not be published.