বুধবার ৪ আশ্বিন, ১৪২৫ ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ বুধবার

ক্যান্সারে যা খাবেন যা খাবেন না

ক্যান্সার রোগীরা যা খাবেন-

সব ধরনের তাজা শাকসবজি- শসা, টমেটো, লেটুস, ক্ষীরা, গাজর, শাকপাতা ইত্যাদি।
টাটকা ফলমূল খাবেন তবে আঙুর খাবেন না।
দুধ দুই গ্লাস, ভাতের মাড় সকালে দুপুরে, রাতে দুই মগ করে।
মসুর, মুগ ও বুটের ডাল, রান্না করা ডালের স্যুপ (পানি) চার মগ।
মোরগ ও মুরগির গোশত (কলিজা, চামড়া ও মগজ বাদ)।
কবুতরের গোশত বেশি করে খাবেন।
সামুদ্রিক যে কোনো মাছ (চিংড়ি বাদ) ও অন্যান্য তেল ছাড়া মাছ।
রান্নায় পরিমিত লবণ খাবেন।
সয়াবিন ও ভেষজ তেল দিয়ে রান্না করা খাবার।
সর তোলা দুধ ও ঘোল, মিষ্টি ছাড়া ননিহীন দই।
খাবার স্যালাইন প্রতিদিন চার থেকে পাঁচটি।
ডাবের পানি, লেবুর শরবত, বেলের শরবত, ইসবগুলের ভুসির শরবত তিন মগ।
কম পরিমাণে খেতে পারবেন-

প্রাণিজ চর্বি, চর্বিযুক্ত গোশত (যেমন গরু, খাসি, হাঁস) হাড়ের ভেতরের তৈলাক্ত মজ্জা, চামড়া ও প্রাণিজ যে কোনো তেল।
দুধ ও দুগ্ধজাত খাদ্য- ঘি, মাখন, মিষ্টি, কেক, পায়েস ইত্যাদি।
মিঠাপানির তৈলাক্ত মাছ, ইলিশ, পাঙ্গাশ, বোয়াল, রুই, কাতলা ইত্যাদি।
খাবার সময় পাতে কাঁচালবণ, লবণ দিয়ে সংরক্ষিত খাদ্য। যেমন- চিপস, লোনা মাছ ইত্যাদি।

অন্যান্য করণীয়

ধূমপান, পানে-সাদাপাতা, জর্দা ইত্যাদি বর্জন করুন।
উচ্চরক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখুন।
ডায়াবেটিস (বহুমূত্র) রোগ নিয়ন্ত্রণ রাখার লক্ষ্যে নিয়মিত চিকিৎসা করুন।
নিয়মিত প্রয়োজনীয় বিশ্রাম।
দুশ্চিন্তা ও উত্তেজনা পরিহার করুন এবং মন ভালো রাখুন।
নিয়মিত ওষুধ খাবেন, চিকিৎসক দিয়ে চেকআপ ও পরামর্শ গ্রহণ করুন।
চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ বন্ধ বা পরিবর্তন করবেন না।
রোগ নিরাময়ের লক্ষ্যে রোগ প্রতিরোধের নিয়মকানুন যথাযথ মেনে চলুন।
জরুরি চিকিৎসার জন্য নিকটতম হাসপাতালে যোগাযোগ করুন।
ক্যান্সার কোনো ছোঁয়াচে রোগ নয়।
সুতরাং রোগীর সঙ্গে থাকা-খাওয়া, একই বিছানায় ঘুমালে কোনো অসুবিধা নেই।

ডা. এম এম সরদার
ক্যান্সার চিকিৎসক
সরদার হোমিও হল

বিষেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/হৃদয়

Categories: লাইফস্টাইল,স্বাস্থ্য

Leave A Reply

Your email address will not be published.