বুধবার ৪ আশ্বিন, ১৪২৫ ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ বুধবার

সর্দি-ঠাণ্ডার ঘরোয়া চিকিৎসা

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: সাধারণত সর্দি-কাশি হলে আমরা প্রথমে ঘরোয়াভাবে চিকিৎসায় সুস্থ হতে চাই। সর্দি-ঠাণ্ডা প্রতিরোধে ঘরোয়া পদ্ধতির চিকিৎসা অনেকের ক্ষেত্রেই কার্যকর ভূমিকা পালন করে থাকে।

জেনে রাখা ভালো, নাক দিয়ে পানি ঝরা, হাঁচি-কাশি, সামান্য জ্বর, ঠাণ্ডা এগুলো অতিসাধারণ; অথচ খুবই ছোঁয়াচে রোগ। এ ছোটখাটো সমস্যাগুলো হলে প্রথমে ঘরোয়া চিকিৎসা প্রয়োগ করতে পারেন। তবে অবশ্যই মনে রাখতে হবে, ঘরোয়া চিকিৎসায় রোগের পরিবর্তন না হলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ ও পরামর্শমতো ওষুধ সেবন করতে হবে।

সর্দি-কাশি-ঠাণ্ডার ঘরোয়া চিকিৎসা :

♦ রাতে শোয়ার আগে সরিষার তেল বা ঘি হালকা গরম করে নাক দিয়ে শুঁকলে সর্দি-ঠান্ডা দূর হয় এবং প্রতিরোধ করে।

♦ রাতে খাবার সঙ্গে রসুন খেলেও সর্দি-ঠান্ডা দূর হয়।

♦ সকালে চারটি করে তুলসী পাতা ও গোলমরিচ খেলে ঠান্ডা লেগে আসা জ্বর উপশম হয়।

♦ পুদিনা পাতা, তুলসী পাতা, কাঁচা আদা মধু মিশিয়ে খেলে ঠান্ডা লাগা দ্রুত ভালো হয়।

প্রতিরোধ ব্যবস্থা :

♦ যাদের ঠান্ডা লেগেছে, তাদের কাছ থেকে দূরে থাকুন। কারণ এর ভাইরাস নিঃশ্বাসের সঙ্গে; এমনকি হাতের মাধ্যমেও ছড়ায়।

♦ পর্যাপ্ত খাওয়া-দাওয়া ও ঘুমালে শরীরে রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে।

♦ আপনার ঘরের তাপমাত্রা বেশি শুষ্ক করবেন না, বেশি আর্দ্রও করবেন না। এতে রোগ প্রতিরোধে সক্ষম হওয়া যায় সহজেই।

♦ নিয়মিত লেবু খান। লেবুতে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ‘সি’, যা ঠান্ডা লাগা প্রতিরোধ করে।

♦ ধুলাবালি এড়িয়ে চলতে হবে। প্রয়োজনে বাইরে বেরুলে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে।

বিষেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/হৃদয়

Categories: স্বাস্থ্য

Leave A Reply

Your email address will not be published.