শুক্রবার ৮ মাঘ, ১৪২৭ ২২ জানুয়ারি, ২০২১ শুক্রবার

চট্টগ্রামের ধ্রুপদী বোলিংয়ের রহস্য জানালেন তাইজুল

অনলাইন ডেস্ক:টানা দুই ম্যাচে জয়। গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামের দুই ম্যাচেরই নায়ক বোলাররা। প্রথম ম্যাচে মোসাদ্দেক হোসেন ২ ওভারে ৯ রানে দুই উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরার পুরস্কার পান। দ্বিতীয় ম্যাচে ৪ ওভারে ৫ রানে চার উইকেট নিয়ে নায়ক মোস্তাফিজুর রহমান। বোলারদের অসাধারণ নৈপুণ্যে দুই ম্যাচে প্রতিপক্ষকে একশর আগে অলআউট করেছে চট্টগ্রাম। প্রথম ম্যাচে বেক্সিমকো ঢাকাকে ৮৮ রানে অলআউটের পর দ্বিতীয় ম্যাচে জেমকন খুলনাকে গুঁড়িয়ে দেয় ৮৬ রানে। তাদের ধ্রুপদী বোলিংয়ের রহস্য কী? 

শেষ ম্যাচে খুলনার ইমরুল কায়েস ও জহুরুল ইসলাম অমির উইকেট নেওয়া তাইজুল ইসলাম জানালেন, দলকে জেতানোর তাড়না থেকেই বোলাররা বড় ভূমিকা রাখছেন। প্রতিপক্ষকে চাপে রাখতে লাইন ও লেন্থ ধরে রাখছেন বোলাররা। তাতে ব্যাটসম্যানরা বাড়তি ঝুঁকি নিচ্ছেন। প্রতি আক্রমণেই আসছে সাফল্য। রোববার মিরপুরে অনুশীলন শেষে তাইজুল বলেন, ‘বোলাররা অবশ্যই ভালো বল করছে। এতে কোনও সন্দেহ নেই। টি-টোয়েন্টিতে ৮-১০ রান দিয়ে ২-৩ উইকেট নেওয়া সহজ না। আমার কাছে মনে হয় টিমকে জেতানোর ক্ষেত্রে এগুলো আমাদের ভালো একটা দিক। সব কিছু হিসেব করলে দেখা যায়, বোলাররা ভালো ভূমিকা রাখছে।’ 

শুধু বোলারদের না, তাইজুল ব্যাটসম্যানদের কৃতিত্ব দিলেন। তার মতে, লো স্কোরিং ম্যাচে ভালো ব্যাটিং করেছেন তারা, ‘৯ উইকেটে জয় মানে আমার কাছে মনে হয়, অনেক ভালো একটা শুরু। কম রান তাড়া করতে হয়েছে, বিষয়টা এমন না। ১০০’র কাছাকাছি রান ছিল। কিন্তু আমাদের ব্যাটসম্যানরা উইকেট হিসেবে অনেক ভালো ব্যাট করেছে। সৌম্য ও লিটনের ভালো শুরুর পর কাজ সহজ হয়ে গিয়েছিল।’ 

মাঝে নিজের বোলিং অ্যাকশন পরিবর্তন করেছেন তাইজুল। স্পিন বোলিং কোচ ড্যানিয়েল ভেট্টরির পরামর্শে বোলিং অ্যাকশনে বদল আনেন। এজন্য নিজের বোলিং মূল্যায়নে আরও কিছু সময় চান তিনি। তাইজুল বলেন, ‘নতুন একটা কিছু করতে গেলে একটু সময় লাগে। মাত্রই আমি শুরু করেছি। এখন আমার কাছে মনে হচ্ছে না খুব একটা সমস্যা হচ্ছে। তারপরও আমি পুরোপুরি স্থায়ী হতে পারিনি। তবে নতুন বোলিং অ্যাকশনে খারাপ হচ্ছে না। বলের নিয়ন্ত্রণ ঠিক আছে। বৈচিত্রও আছে। আগের থেকে কাজ সহজ হচ্ছে।’

বিষেরবাঁশী.কম/ডেস্ক/আয়েশা

Categories: খেলাধূলা

Leave A Reply

Your email address will not be published.