মঙ্গলবার ৯ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ ২৪ নভেম্বর, ২০২০ মঙ্গলবার

ট্রাম্প সহযোগিতা না করলে করোনায় মৃত্যু আরও বাড়তে পারে: বাইডেন

অনলাইন ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, সাবলীলভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর না হলে যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে আরও বেশি মানুষের মৃত্যু হতে পারে।

অর্থনীতি পুনরুদ্ধার পরিকল্পনা নিয়ে দেওয়া বক্তব্যে বাইডেন এই আশঙ্কার কথা বলেছেন। সোমবার ডেলাওয়ার অঙ্গরাজ্যের উইলমিংটন শহর থেকে বাইডেন এই বক্তৃতা দেন। তার আগে নবনির্বাচিত ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস বাইডেনকে বক্তৃতা দেওয়ার জন্য মঞ্চে আসার আহ্বান জানান।

যুক্তরাষ্ট্রে করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলা করে অর্থনৈতিক সমস্যা সমাধানের জন্য নিজের প্রশাসন দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য প্রস্তুত বলে উল্লেখ করেন বাইডেন।

বাইডেন দ্রুততার সঙ্গে করোনা প্রণোদনা আইন পাস করার জন্য ডেমোক্র্যাট ও রিপাবলিকান আইনপ্রণেতাদের প্রতি আহ্বান জানান। বক্তৃতার পর বাইডেন সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তর দেন।

টিকাকে জনস্বাস্থ্যের জন্য জরুরি উল্লেখ করে বাইডেন বলেন, লোকজনের ওপর তার (টিকা) ব্যবহার নিশ্চিত করা না হলে কোনো উপকারিতা থাকবে না। আমেরিকার ৩০ কোটি মানুষের জন্য টিকা কীভাবে সংগ্রহ করা হবে, কীভাবে তা বিতরণ করা হবে, এসব নিয়ে কী পরিকল্পনা—এগুলোকে অনেক বড় বিষয় হিসেবে তিনি উল্লেখ করেন।

বাইডেন বলেন, ‘আমরা যদি এসব নিয়ে ২০ জানুয়ারি পর্যন্ত অপেক্ষা করি, তাহলে দেড় মাস দেরি হয়ে যাবে।’ সমন্বয় করেই এ নিয়ে কাজ শুরু করার জন্য তিনি তাগিদ দেন, যাতে দ্রুততার সঙ্গে বিষয়টি সম্পন্ন করা যায়। তাঁর ভাষ্য, এ ক্ষেত্রে যদি সমন্বয় না থাকে, তাহলে যুক্তরাষ্ট্রে অনেক বেশি মানুষের মৃত্যু হতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রে হু হু করে করোনার সংক্রমণ বাড়ছে। বাইডেনের বক্তৃতার কয়েক ঘণ্টা আগেই সংবাদ বেরিয়েছে, মডার্নার টিকা করোনার বিরুদ্ধে সাড়ে ৯৪ শতাংশ কার্যকর বলে প্রমাণ পাওয়া গেছে। তার আগে ফাইজারের টিকা ৯০ শতাংশ ক্ষেত্রে কার্যকর বলে জানানো হয়। করোনার দ্বিতীয় দফা সংক্রমণের মধ্যে এসব খবর উৎকণ্ঠিত মানুষের কাছে আশা হিসেবে দেখা দিয়েছে।

সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল দ্রুত এসব টিকার অনুমোদন দেবে বলে মনে করা হচ্ছে। এরপরই তা দ্রুততার সঙ্গে আমেরিকার সর্বত্র পৌঁছানো হবে। জনসাধারণের জন্য টিকার ব্যবহার নিশ্চিত করার কাজও শুরু হয়ে গেছে। এ কাজে মার্কিন সেনাবাহিনীকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

৩ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এর তিন দিনের মাথায় জানা যায়, ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হচ্ছেন। ভোট গণনার সার্টিফাই ফলাফল প্রতিটি অঙ্গরাজ্য থেকে কেন্দ্রে পৌঁছার প্রক্রিয়া চলছে।

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ভোটে কারচুপি ও জালিয়াতির অভিযোগ তুলেছেন। তিনি নির্বাচনের ফলাফল মেনে না নেওয়ার অবস্থান গ্রহণ করেছেন। তাঁর প্রশাসনের পক্ষ থেকে বাইডেনের ক্ষমতা গ্রহণের জন্য প্রস্তুতির কোনো কার্যক্রমে সহযোগিতা করা হচ্ছে না।

ফেডারেল সরকারের জেনারেল সার্ভিস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের আনুষ্ঠানিকভাবে সব ফলাফল পাওয়ার পর নতুন প্রেসিডেন্টকে ক্ষমতা গ্রহণের প্রক্রিয়ায় সহযোগিতা করার কথা। একই সঙ্গে প্রশাসনে নতুন লোক নিয়োগসহ অন্যান্য কাজের জন্য ফেডারেল অর্থ বরাদ্দ দেওয়ার কথা। যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সব সময়ই নির্বাচনের ফলাফল পরিষ্কার হওয়ার পর থেকেই এমন পালাবদলের প্রক্রিয়া শুরু হয়ে থাকে। তবে এবার তার ব্যতিক্রম দেখা যাচ্ছে। এ ছাড়া নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্টকে জাতীয় নিরাপত্তা নিয়ে প্রতিদিন অবহিত করার কাজও শুরু হয়নি।

এখন পর্যন্ত প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের পক্ষ থেকে নির্বাচনে কারচুপি বা জালিয়াতির কোনো অকাট্য প্রমাণ আদালতে উপস্থাপন করা সম্ভব হয়নি। ভোট গণনা নিয়ে ট্রাম্প শিবিরের বেশ কিছু মামলাও আদালতে খারিজ হয়ে গেছে।

চরম উদ্বেগ আর চাপা উত্তেজনার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে ওয়াশিংটনের পরিস্থিতি। ট্রাম্প প্রশাসনের জাতীয় নিরাপত্তা প্রধান রবার্ট ও’ব্রায়েন সোমবার বলেছেন, যদি চলমান মামলাগুলো কার্যকর না হয়, তাহলে বাইডেন প্রশাসনের কাছে সাবলীলভাবেই ক্ষমতার হস্তান্তর ঘটবে।

ও’ব্রায়েন বলেছেন, নতুন প্রশাসন আসার পর তাদের নীতিমালা নিয়ে কাজ করার জন্য কিছু সময় লাগবে। বাইডেন-হ্যারিসকে নিশ্চিত বিজয়ী হিসেবে উল্লেখ করে তিনি বলেছেন, ‘আমাদের পেশাদার দল ক্ষমতার পালাবদলের জন্য কাজ করবে। এ নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই।’

বাইডেন তাঁর বক্তৃতায় বলেছেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সহযোগিতা করলে ক্ষমতার পরিবর্তনের কাজগুলো অনেক সহজ হয়ে উঠবে। এমনটা না হলে ব্যবসায়ী, কর্মজীবী দলসহ ডেমোক্র্যাট ও রিপাবলিকান দলের নেতাদের সহযোগিতা নিয়ে তিনি তাঁর ক্ষমতা গ্রহণের প্রস্তুতির কাজ এগিয়ে নেবেন। জানুয়ারির ২০ তারিখ পর্যন্ত অপেক্ষা না করেই প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এই কাজে এগিয়ে আসবেন বলে বাইডেন আশাবাদ প্রকাশ করেন।

বিষের বাঁশি/ডেস্ক/ব্রিজ

Categories: আন্তর্জাতিক

Leave A Reply

Your email address will not be published.