মঙ্গলবার ১১ কার্তিক, ১৪২৭ ২৭ অক্টোবর, ২০২০ মঙ্গলবার

তিতাস গ্যাসের লাইনে এখনাে ৮১৪টি লিকেজ

অনলাইন ডেস্ক:- শিল্পনগরী নারায়ণগঞ্জের পশ্চিম তল্লা এলাকার বায়তুস সালাত মসজিদের বিস্ফোরণে মৃত্যুর সংখ্যা এখন পর্যন্ত মোট ৩৪। এই বিস্ফোরণ ও আগুনের জন্য দায়ী মূলত তিতাসের গ্যাস পাইপলাইনের লিকেজ। একটি লিকেজ থেকে এত মানুষের প্রাণহানির পর তিতাসের বিতরণ এলাকার মানুষ দুশ্চিন্তায় রয়েছেন পাইপলাইনের লিকেজ নিয়ে। তিতাসের হাতে যে তথ্য রয়েছে, তাতেই বলা হচ্ছে ১ হাজার ৬২২টি লিকেজ রয়েছে তাদের বিতরণ এলাকায়। এর মধ্যে সংস্কার করে ঠিক করা হয়েছে প্রায় ৭৮১টি।বাকি ৮১৪টি এখনও সংস্কার হয় নি।

তিতাসের বেশির ভাগ পাইপলাইনেরই মেয়াদ ফুরিয়েছে অনেক আগেই।গ্রাহক কোনো লিকেজ খুঁজে পেলে তিতাসকে ফোনে জানালে তিতাস ব্যবস্থা নেয়। অন্তত নারায়ণগঞ্জে দুর্ঘটনার পর তিতাস প্রমাণ করে দিয়েছে পাইপলাইনের লিকেজ খুঁজে বের করার দায় গ্রাহকের।

নারায়ণগঞ্জ মসজিদে দুর্ঘটনায় তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক আব্দুল ওহাব সম্প্রতি জানায়, তিতাস ৪ লাখ রাইজার অনুসন্ধান করে ৭ শতাংশে লিকেজ পেয়েছে। অর্থাৎ তিতাসের কাছে আগে থেকেই লিকেজের খবর রয়েছে। কিন্তু অনেক ক্ষেত্রেই তা সংস্কার করা হয় না।

তিতাসের পক্ষ থেকে যে প্রচারণা চালানো হচ্ছে, তাতে প্রত্যেক বিভাগের জন্য আলাদা টেলিফোন নম্বর দিয়ে লিকেজের তথ্য জানাতে গ্রাহককে অনুরোধ করা হয়েছে। তিতাসের হাতে থাকা লিকেজগুলো ২ মাসের মধ্যে সংস্কারের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

তিতাসের এক কর্মকর্তা বলেন , ‘নারায়ণগঞ্জে হয়তো বড় দুর্ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু গত কয়েক বছর ধরেই ধারাবাহিকভাবে গ্যাসের কারণে অগ্নিকাণ্ড ঘটেই চলেছে।’

তিতাসের পরিচালক রানা আকবর হায়দারি জানান, ‘আমরা ইতোমধ্যে লিকেজের তালিকা করেছি। তালিকা অনুযায়ী জোন ভাগ করে সেই জোনের ডিএমডি এবং জিএমকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। আগামী এক মাসের মধ্যে আমরা বেশিরভাগ লিকেজ মেরামত করতে পারবো বলে আশা রাখছি। যেসব লিকেজ মেরামতের ক্ষেত্রে অনেক টাকার প্রয়োজন, সেগুলা বাছাই করে হেড অফিসে পাঠাতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি কাজ শুরু করে দিতে বলা হয়েছে। যাতে করে যা বিল আসে তা বোর্ডে পাস করে দ্রুত ছাড় দেওয়া যায়। ময়মনসিংহ, গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জের ডিএমডি এবং ঢাকা নর্থ আর সাউথের জিএমকে এই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। তারা ইতোমধ্যে তাদের এলাকার লিকেজের হিসাব আমাদের দিয়েছেন।তবে কাজটা কিছুটা জটিল। যেমন হাইওয়ের নিচে অথবা নদী বা খালের নিচের, সেগুলোও এখন বের করে মেরামত করতে বলা হয়েছে। এইগুলো মেরামত করতে মাসখানেক সময় লাগতে পারে।’

বিষেরবাঁশী.কম/ডেস্ক/রূপা

Categories: সারাদেশ

Leave A Reply

Your email address will not be published.