বুধবার ৮ আশ্বিন, ১৪২৭ ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০ বুধবার

আগামী ২০ আগস্ট সাবরিনা-আরিফের অভিযোগ গঠনের শুনানি

অনলাইন ডেস্ক: জেকেজি হেলথকেয়ারে করোনাভাইরাস পরীক্ষার ভুয়া রিপোর্ট দেওয়ার অভিযোগে প্রতারণার মামলায় চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনা চৌধুরী ও সিইও আরিফুল হক চৌধুরীসহ আটজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য ২০ আগস্ট দিন ধার্য করেছেন আদালত।

আজ বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) ঢাকা মহানগর হাকিম সরাফুজ্জামান আনছারী আসামি পক্ষের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেন। পরে আসামি পক্ষের আইনজীবী মামলার নথি পাননি বলে সময়ের আবেদন করেন। বিচারক আবেদন মঞ্জুর করে ২০ আগস্ট দিন ধার্য করেন।

এর আগে ৬ জুন ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম জুলফিকার হায়াদ মামলার চার্জশিট দেখেন।

এরপর তিনি মামলাটি বিচারের জন্য ঢাকা মহানগর হাকিম সরাফুজ্জামান আনছারীর আদালতে বদলি করেন।

আদালত ১৩ আগস্ট সাবরিনা-আরিফসহ আটজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য দিন ধার্য করেন।

মামলার আসামিরা হলেন- আবু সাঈদ চৌধুরী, হুমায়ূন কবির হিমু, তানজিলা পাটোয়ারী, বিপ্লব দাস, শফিকুল ইসলাম রোমিও ও জেবুন্নেসা।

করোনা পরীক্ষার সনদ জালিয়াতির অভিযোগে গত ২৩ জুন জেকেজির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) আরিফুল হক চৌধুরীসহ প্রতিষ্ঠানটির ৬ কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করে তেজগাঁও থানা পুলিশ। জেকেজির বিরুদ্ধে মামলা হওয়ার পর ২৪ জুন করোনার নমুনা সংগ্রহের জন্য জেকেজির অনুমতি বাতিল করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

পুলিশি তদন্তে প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান হিসেবে করোনা সনদ জালিয়াতিতে ডা. সাবরিনার নাম আসে। এরপর গত ১২ জুলাই তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ এবং ওই দিনই জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট হাসপাতাল থেকে ডা. সাবরিনাকে সাময়িক বহিষ্কার করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

বিষেরবাশিঁ.কম/ডেস্ক/মৌ দাস

Categories: অপরাধ ও দুর্নীতি,আইন-আদালত

Leave A Reply

Your email address will not be published.