বৃহস্পতিবার ২৯ শ্রাবণ, ১৪২৭ ১৩ আগস্ট, ২০২০ বৃহস্পতিবার

ভ্রাম্যমাণ আদালতের জব্দ করা ২৫৫ বস্তা পচা ডাল গায়েব

অনলাইন ডেস্ক: রাজশাহী জেলায় পুঠিয়া উপজেলার চালকলের গুদামে মজুত ২৫৫ বস্তা পচা ডাল জব্দ করেছিলেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। সেই ডাল প্রকাশ্যে ধ্বংসের’ নির্দেশও দিয়েছিলেন পুঠিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ওলিউজ্জামান।

কিন্তু ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্দেশ অমান্য করে গোপনে জব্দকৃত ডাল সরিয়ে ফেলেছেন চালকল মালিকরা। এলাকাবাসীর অভিযোগে, গত ২৭ জুন বিকেলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ওলিউজ্জামান উপজেলার ধোপাপাড়া এলাকার হেদায়েত অ্যান্ড হিজবুল্লা চালকলে অভিযান চালান। সেখানে ২৫৫ বস্তা পচা ডাল জব্দ করেন। ওই সময় পচা ডাল মজুতের দায়ে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন আদালত। একই সঙ্গে জব্দকৃত ডাল ধ্বংসের নির্দেশ দেন নির্বাহী কর্মকর্তা।

স্থানীয়রা জানায়, একটি ফিস ফিড মিল মালিক পাশের একটি চাতালে তাদের বিভিন্ন উপকরণ মজুত রাখেন। ওই গুদামে দীর্ঘদিন থেকে চরম দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়লে আশপাশের লোকজন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ দেন। পরে ওই গুদামে নির্বাহী কর্মকর্তা ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। নির্বাহী কর্মকর্তা জব্দকৃত ওই মালামাল ধ্বংস না করেই চলে যান। পরে ওই দিন রাতেই ডাল মালিক মহিষের গাড়িতে করে তা সরিয়ে নেন।

হেদায়েত অ্যান্ড হিজবুল্লা চালকলের মালিক হাবিবুল্লাহ বলেন, আমি এই চাতাল ও গুদামের মালিক। আমার চাতালে পাশের একটি ফিড মিলের মালিক ২৫৫ বস্তা পচা ডাল মজুত করেছিলেন। ভ্রাম্যমাণ আদালত ওই ডালগুলো ধ্বংসের নির্দেশ দিয়েছিলেন। কিন্তু মিল মালিক ওই রাতেই পুরো ডালগুলো উজালপুর এলাকায় নিয়ে গেছেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ওলিউজ্জামান বলেন, পচা ডাল রাখার অপরাধে একজনের কাছ থেকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। পাশাপাশি জব্দকৃত ডালগুলো ধ্বংসের নির্দেশ দেয়া হয়েছিল। জব্দকৃত ডালগুলো ধ্বংস না করে সরিয়ে ফেলা বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিষয়টি আমি খতিয়ে দেখছি।

সূত্র: জাগোনিউজ২৪


বিষেরবাশিঁ.কম/ডেস্ক/মৌ দাস

Categories: সারাদেশ

Leave A Reply

Your email address will not be published.