শুক্রবার ২৬ আষাঢ়, ১৪২৭ ১০ জুলাই, ২০২০ শুক্রবার

‘নারায়ণগঞ্জ সদর থানার কনস্টেবলের বিরুদ্ধে সাংবাদিক নিগৃহীতের অভিযোগ’

বিষেরবাশী ডেস্ক: নারায়ণগঞ্জ সদর থানার কনস্টেবলের বিরুদ্ধে সাংবাদকর্মীকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অভিযুক্ত কনস্টেবলের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিয়েছেন। আজ শনিবার (২৭ জুন) সন্ধ্যায় শীতলক্ষ্যা তীরবর্তী ওয়াকওয়েতে ঘটে এ ঘটনা।

লাঞ্চিত দৈনিক সংবাদচর্চার ও সাপ্তাহিক বিষের বাঁশির স্টাফ রিপোর্টার সামিতুল হাসান নিরাক অভিযোগ করেন, ২৭ জুন শনিবার সন্ধ্যায় সদর মডেল থানার পুলিশ এসে ঘটনাস্থলে থাকা লোকজনকে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ ও স্থান ত্যাগ করতে তেড়ে আসেন। এসময় পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে সাংবাদিক নিরাক হোসেন নিজের পরিচয় দিলে কয়েকজন কনস্টেবল অশালীন আচরণ শুরু করেন। বারবার গণমাধ্যমকর্মী বলে পরিচয় দিলেও পুলিশ কনস্টেবল আমিনুল যাচ্ছেতাই গালিগালাজ করে বলে, ‘তুই কোন বা** সাংবাদিক এইসব সাংবাদিকের বেল নাই। এসময় তাকে গালিগালাজ না করতে বলা হলে কিছু বুঝে উঠার আগেই আমাকে চেয়ার দিয়ে সজোরে আঘাত করে।

তারপর সেখান থেকে ফিরে এসে মুঠোফোনে সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসাদুজ্জামানের নিকট অভিযোগ করলে তিনি বিষয়টি দেখবেন বলে জানান। নারায়ণগঞ্জে পুলিশের কতিপয় সদস্যের বিরুদ্ধে প্রায়ই এরকম অপেশাদারী ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এর আগেও পুলিশ কনস্টেবল সদস্যরা বঙ্গবন্ধু সড়কে অবস্থিত সাংবাদিক ইউনিয়নের সামনে এসে ২জন টিভির ক্যামেরাপার্সনের সাথে খারাপ আচরণ করে। এছাড়া শহরের কালিবাজার মোড়েও এক শিক্ষানবিস সাংবাদিককে পিটিয়ে আহত করে সদর থানার পুলিশ কনস্টেবলরা। দিনে দিনে এমন আচরণের পুনরাবৃত্তি রোধে উর্ধ্বতন পুলিশ কর্তৃপক্ষের কার্যকর পদক্ষেপের দাবী জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা।

এব্যাপারে নিউজ২৪.ওয়েবসাইট চ্যানেল ও বিষেরবাশিঁরডটকমের সম্পাদক সুভাষ সাহাকে সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসাদুজ্জামানকে মোবাইলে সংশ্লিষ্ট কনস্টেবলের অসদাচরণের ব্যাপারে অভিযোগ করলে, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান দুঃখপ্রকাশ করে বলেন, অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন। তিনি আগেই এই অভিযোগটি জেনেছেন।

বিষেরবাশিঁ.কম/ সংবাদদাতা /নিরাক

Categories: নারায়ণগঞ্জের খবর,শীর্ষ সংবাদ,সারাদেশ

Leave A Reply

Your email address will not be published.