বৃহস্পতিবার ৫ আশ্বিন, ১৪২৫ ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ বৃহস্পতিবার

প্রথম সমকামী প্রধানমন্ত্রী পেলো আয়ারল্যান্ড

 

 

  • অনলাইন ডেস্ক

রিপাবলিক অব আয়ারল্যান্ডের নতুন প্রধানমন্ত্রী হলেন লিও ভারাদকার (৩৮)। বুধবারে অনুষ্ঠিত এক সংসদীয় ভোটে দেশটি পেলো সবচেয়ে কমবয়সী ও প্রথমবারের মতো সমকামী সরকারপ্রধান। বিশ্বের ইতিহাসে চতুর্থ সমকামী সরকারপ্রধান হলেন লিও ভারাদকার।

৫৭টি ভোট পড়ে লিও ভারাদকারের পক্ষে এবং বিপক্ষে পড়ে ৫০টি ভোট। এছাড়াও ৪৭ জন ভোট প্রদানে বিরত থাকেন।

আইরিশ নার্স মা এবং ভারতীয় বংশোদ্ভুত ডাক্তার বাবার সন্তান মধ্য ডানপন্থী আদর্শের এই নতুন প্রধানমন্ত্রী এমাসের শুরুর দিকে ফাইন গেইল পার্টির নেতৃত্বে আসেন।

নির্বাচিত হওয়ার পর আইরিশ সংসদকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, “আমি নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য নির্বাচিত হয়েছি কিন্তু আমি সেবার অঙ্গিকার করছি।”

১৫ বছর পর চলতি বছরের শুরুতে আয়ারল্যান্ডের মধ্য-ডানপন্থী ফাইন গেইল নেতা ইন্ডা কেনি প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন। তখন থেকেই শক্তিশালী নেতৃত্বের দৌড়ের তালিকায় লিও বারাডকার এগিয়ে ছিলেন।

২ জুন ভোটের মাধ্যমে ফাইন গেইলের নতুন নেতৃত্ব নির্বাচিত হয়। নিয়ম অনুযায়ী, দলের সংসদ সদস্য, স্থানীয় কাউন্সিলর এবং নিয়মিত পার্টির সদস্যদের ইলেকটোরাল কলেজ ভোটের মাধ্যমে নেতৃত্ব নির্বাচিত হয়।

দলের নেতা নির্বাচিত হওয়ার পর লিও আস্থা ভোটের মাধ্যমে সংসদ নেতা নির্বাচিত হলেন। সংসদে ফাইন গেইলের একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা রয়েছে।

২০১৫ সালে সমলিঙ্গের বিয়ের ব্যাপারে গণভোট অনুষ্ঠানের কিছু সময় আগে এক টিভি সাক্ষাৎকারে নিজের সমকামী পরিচয় প্রকাশ করেন লিও।

মাত্র ২৪ বছর বয়সে লিও প্রথম কাউন্সিলর নির্বাচিত হন। আর্থসামাজিক ইস্যুতে তার দৃষ্টিভঙ্গি তাকে একজন মধ্য ডানপন্থী রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গির বলে প্রকাশ করে।

২০১১ সালে ফাইন গেইল তাকে পরিবহন, পর্যটন এবং ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেয়। পরে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর দায়িত্বও পালন করেন লিও। সাম্প্রতিক সময়ে তিনি আয়ারল্যান্ডের কল্যাণ ব্যবস্থার বিষয়টি দেখছিলেন।

বি.বা/ডেস্ক/ক্যানি

Categories: আন্তর্জাতিক

Leave A Reply

Your email address will not be published.