সোমবার ১১ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ ২৫ মে, ২০২০ সোমবার

সৌদিতে শপিং ট্রলিতে থুতু দেয়ায় নাগরিকের মৃত্যুদণ্ডের সিদ্ধান্ত!

অনলাইন ডেস্ক: সৌদি আরব সরকার কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাস মহামারির প্রাদুর্ভাবের মধ্যে বেশ কঠোর অবস্থানে আছে। শুরুর দিকে ওমরাহ পালনে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়। তারপর পবিত্র দুই মসজিদ- মসজিদুল হারাম বা হেরেম শরীফ ও মসজিদে নববী বন্ধের ঘোষণা দেয়া হয়। সবশেষ বাকি শহরগুলোর মসজিদগুলোও বন্ধ করে দেয়া হয়। এরপর এগুলো যথেষ্ট মনে না হওয়ায় বর্তমানে কারফিউ জারি করা হয়েছে।

সম্প্রতি একটি শপিং মলের ট্রলিতে থুতু দেয়ার কারণে অজ্ঞাতপরিচয় এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। ইচ্ছাকৃতভাবে ও জনস্বাস্থ্যকে হুমকিতে ফেলার জন্য থুতু দেয়ার অপরাধে ওই ব্যক্তিকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হতে পারে বলে জানা গেছে।

সৌদি আরবের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের হাইল প্রদেশ থেকে ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়। এখন তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। দোষী সাব্যস্ত হলে মৃত্যুদণ্ডের মুখোমুখি হতে পারেন তিনি।

সৌদি অনলাইন পত্রিকায় বলা হয়েছে, ওই ব্যক্তির কাজটিকে একটি বড় অপরাধ হিসাবে গণ্য করা হচ্ছে এবং তাকে ধর্মীয় ও আইনিভাবে তাকে অপরাধী হিসাবে গণ্য করা হবে।

সূত্রটি বলছে, ইচ্ছাকৃতভাবে সমাজে করোনা ভাইরাস মহামারি ছড়িয়ে দেওয়া এবং তাদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়ানোর অভিযোগ আনা হয়েছে ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে।

ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন (ডব্লিউএইচও) এর মতে, কোভিড-১৯ ভাইরাস মূলত সংক্রমিত মানুষের শ্বাস প্রশ্বাস, থুতু, কফ, হাঁচি-কাশির মাধ্যমে অন্যদের সংক্রমিত করে।

ফেব্রুয়ারিতে ভাইরাসটির তীব্রতা এতটাই বৃদ্ধি পায় যে ডব্লিউএইচও এটাকে বৈশ্বিক মহামারি হিসাবে ঘোষণা করতে বাধ্য হয়। এরই মধ্যে করোনা ছড়িয়েছে বিশ্বের ২০৬টির বেশি দেশ ও অঞ্চলে। দেশে দেশে লকডাউন জারি করা হয়েছে।

বিস্তার রোধে লোকদের সামাজিক দূরত্ব অনুশীলন করতে বলা হয়েছে। গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহান শহরে করোনা ভাইরাস বা কোভিড-১৯ সংক্রমণের প্রথম ঘটনাটি ঘটেছিল। মারাত্মক ভাইরাসটি এখন বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে। এখন পর্যন্ত ৬০ হাজারের বেশি মানুষের প্রাণ নিয়েছে করোনা। আক্রান্তের সংখ্যা ১১ লাখ ৩০ হাজারেরও বেশি।

সৌদি আরব এখনও পর্যন্ত কোভিড-১৯ এ ২ হাজারেরও বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ২৫ জনের।

বিষেরবাঁশি.কম/ডেস্ক/মৌ দাস

Categories: আন্তর্জাতিক

Leave A Reply

Your email address will not be published.