বুধবার ৪ আশ্বিন, ১৪২৫ ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ বুধবার

ব্যাংক লেনদেনে বর্ধিত আবগারি শুল্ক পরিবর্তনের ইঙ্গিত

 

  • বিশেষ সংবাদদাতা

পিছু হটছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। গত ১ জুন জাতীয় সংসদে ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে ব্যাংক আমানত ও লেনদেনের ওপর আবগারি শুল্ক বাড়ানোর প্রস্তাব করেছেন। এ নিয়ে এখন দেশে ও সংসদে তুমুল বিতর্ক চলছে। এরই মাঝে অর্থমন্ত্রী বলেছেন, বাজেটে প্রস্তাবকৃত আবগারি শুল্ক পরিবর্তনের কোনো সুযোগ নেই। কিন্তু আজ বুধবার তিনি পূর্বের অবস্থান থেকে পিছু হঠার ইঙ্গিত দিলেন। বললেন, ব্যাংকে আমানত ও লেনদেনের উপর আবগারি শুল্কের হার পরিবর্তন হতে পারে। বাজেট প্রস্তাব করা হয়েছে। এখনো বাজেট পাশ হয়নি। বিষয়টি নিয়ে সংসদে আলোচনা চলছে। আলোচনার পর এটি পরিবর্তন হতে পারে।
আজ বুধবার সচিবালয়ে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।
অর্থমন্ত্রী বলেন, আবগারি শুল্ক নতুন কোনো বিষয় নয়। কিন্তু তোমরা (সাংবাদিক/গণমাধ্যম) এটি নিয়ে হৈচৈ করছো। এই বিষয়টি আগে থেকেই ছিল। কিন্তু এবারই প্রথম মানুষ এটার বিরুদ্ধে কথা বলতে শুরু করেছে। আর এমনভাবে কথা হচ্ছে যে এটা নতুন একটা জিনিস। সুতরাং শুল্ক তুলে দেয়ার কিছু নেই। তবে শুল্কের হারে পরিবর্তন আসতে পারে।
উল্লেখ্য, ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে বলা হয়েছে, বছরের যেকোনো সময় ব্যাংক হিসাবে এক লাখ টাকার বেশি স্থিতি থাকলে আবগারি শুল্ক ৫০০ থেকে বাড়িয়ে ৮০০ টাকা করা হবে। আর ১০ লাখ টাকা থেকে এক কোটি টাকা পর্যন্ত এক হাজার ৫০০ টাকার পরিবর্তে দুই হাজার ৫০০ টাকা, এক কোটি থেকে পাঁচ কোটি টাকা পর্যন্ত সাত হাজার ৫০০ টাকার পরিবর্তে ১২ হাজার টাকা এবং পাঁচ কোটি টাকার বেশি লেনদেনে ১৫ হাজার টাকার পরিবর্তে ২৫ হাজার টাকা আবগারি শুল্ক আরোপ করার প্রস্তাব করা হয়।

বি.বা/ডেস্ক/ক্যানি

Categories: অর্থনীতি

Leave A Reply

Your email address will not be published.