মঙ্গলবার ১৪ আশ্বিন, ১৪২৭ ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০ মঙ্গলবার

ঝালকাঠিতে ব্রীজ নির্মানের কাজ বন্ধ: দুর্ভোগে এলাকাবাসী

অনলাইন ডেস্ক: ঝালকাঠি উপজেলার রাজাপুরের মঠবাড়ি ইউনিয়নের বাগড়ি গ্রামের ধানসিড়ি নদীর শাখা খালের উপরের এলজিইডির যে ব্রীজ নির্মান কাজ শুরু করা হয়েছে সেই ব্রীজটি অন্যত্র সরিয়ে নেয়ার ঘটনা ঘটেছে। ফলে রাস্তাটি ১৫ দিন ধরে বন্ধ পরে আছে এবং খালটিও বন্ধ হয়ে আছে। পুরো এলাকায় এখন পানির জন্য হাহাকার। ‍ উপজেলার বাগড়ি প্রশিক্ষা অফিস থেকে বাগড়ি সিকদার ও ওই গ্রামের কয়েকটি স্কুলের শিশু শিক্ষার্থীসহ কয়েক হাজার লোক এখন চরম ভোগান্তিতে আছেন। স্থানীয়দের অভিযোগ, ওই এলাকার দীর্ঘদিন ধরে জরাজীর্ণ লোহার পাটা ব্রীজিটি ভেঙে নতুন করে ঢালাই ব্রীজ নির্মানের জন্য প্রায় ২০ লাখ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। এ মর্মে ঠিকাদার কাজ ১৫ দিন আগে শুরু করে। দীর্ঘদিনের দুর্ভোগ কম হবে বলে স্থানীয়দের মধ্যে আমার সঞ্চার হয়। জরাজীর্ণ লোহার পাটা ব্রীজিটি ভেঙে পুরোদমে কাজও শুরু করা হয়। কিন্তু স্থানীয়দের সেই আশা বেস্তে গেছে। উল্টো এখন ওই স্থানটি গভীর করে মাটি কাটার ফলে মৃত্যু কূপে পরিনত হয়েছে। কাজ শুরুর ৮/১০ দিনের মাথায় অন্য স্থানের ব্রীজ ভুলে এখানে বসানো হচ্ছিলে বলে ঠিকাদার ব্রীজ নির্মান কাজ বন্ধ করে মালপত্র নিয়ে উপজেলার তুলাতলা এলাকায় চলে যায়। স্থানীয়রা আরও জানান, প্রভাবশালী কোন মহলের ইন্দ্রনে উপজেলা প্রকৌশলীকে ম্যানেজ করে এখানের ব্রীজটি কেটে অন্যত্র নেয়া হয়েছে। এতে যেমন একদিকে রাস্তা বন্ধ হয়েছে, তেমনি অন্য দিকে খালের দু মাথা বাঁধ দেয়ায় পানি সরবরাহও বন্ধ হয়ে আছে। অপর দিকে পাশের মাটি ভেঙে পড়ায় আশপাশের পরিবারগুলো শিশুদের নিয়ে আতঙ্কে রয়েছে। এ নিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে ক্ষোভ ও হাতাশা বিরাজ করছে। তাদের দাবি, দ্রুত যেন এ সমস্যার সমাধান হয় এবং পুনরায় ব্রীজ নির্মানের কাজ শুরু হয়। ঝালকাঠিরি এলজিইডির নির্বাহি প্রকৌশলী রুহুল আমিন জানান, বিষয়টি খোজ নিয়ে দ্রুত প্রযোজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। বিষেরবাঁশি.কম/ডেস্ক/মৌ দাস/রহিম রেজা

Categories: অপরাধ ও দুর্নীতি,সারাদেশ

Leave A Reply

Your email address will not be published.