শনিবার ২৯ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ শনিবার

পাবনায় প্রকৌশলীকে যুবলীগ কর্মী সন্দেহে পিটিয়ে জখম

অনলাইন ডেস্ক: পাবনার ঈশ্বরদীতে যুবলীগের নেতাকর্মীরা মাসুদ রানা (৩০) নামে এক প্রকৌশলীকে যুবলীগ কর্মী সন্দেহে পিটিয়ে আহত করেছে। পরে তাকে আহত অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনাটি গতকাল সোমবার (২৫ নভেম্বর) রাতে ঈশ্বরদী শহরের ওভার ব্রিজ এলাকায় ঘটে।

আহত মাসুদ রানা নিউক্লিয়ার পাওয়ার প্ল্যান্ট কোম্পানি বাংলাদেশ লিমিটেডের প্রকৌশলী এবং রাজশাহীর দুর্গাপুর থানার মোকলেছুর রহমানের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ঈশ্বরদী শহরের পশ্চিমপাশের ওভার ব্রিজ এলাকায় ২ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সমর্থকদের বিবাদমান দুটি পক্ষের মধ্যে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। তখন ওই এলাকা দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় মাসুদ রানাকে লাঠিসোটা হাতে আসা কয়েক জন যুবক ধাওয়া করে। আতঙ্কে তিনি দৌড় দিলে হামলাকারীদের একজন তার পায়ে লাঠি দিয়ে আঘাত করে। এরপর ৭-৮ জন মিলে লাঠিসোটা নিয়ে তার ওপর হামলা করে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় পথচারীরা রানাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক কাবেরী শাহ্ জানান, রানার মাথা, ঘাড়ে, মুখে, হাতে ও পায়ে আঘাতের চিহ্ন আছে। পুরো শরীরেও জখমের দাগ রয়েছে। এ ছাড়া বেশ রক্তক্ষরণও হয়েছে।

ঈশ্বরদী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাহাউদ্দীন ফারুকী বলেন, একাধিক সূত্রে জানা গেছে, লাঠিসোটা হাতে থাকা যুবকদের মধ্যে ২ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের নেতাকর্মীরা ছিলেন। হামলাটি যুবলীগ কর্মী সন্দেহেই হয়েছে। আহত ব্যক্তি আইনগত ব্যবস্থা নিতে চাইলে আমরা জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব।

এ ব্যাপারে ২ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি ইলিয়াস হোসেন বলেন, শুনেছি স্থানীয় যুবকরা হামলা করেছে। যারাই এর সঙ্গে জড়িত, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিষেরবাঁশি.কম/ডেস্ক/মৌ দাস

Categories: অপরাধ ও দুর্নীতি,সারাদেশ

Leave A Reply

Your email address will not be published.