মঙ্গলবার ৫ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ ১৯ নভেম্বর, ২০১৯ মঙ্গলবার

চায়ের সঙ্গে খাওয়া যাবে কাপও : নাম দেওয়া হয়েছে ‘ইট কাপ’

অনলাইন ডেস্ক: যে কোনো আড্ডা কিংবা নাস্তায় চায়ের সঙ্গে বিস্কুট বা কিছু না কিছু তো থাকেই। তা না হলে ‘চা-টা’ আর বলার মানে হয় না। তবে এবার আর আলাদা কিছু রাখার দরকার নেই।

চায়ের সঙ্গে খাওয়া যাবে কাপও। চা পান করার সাথে সাথে কাপও নিঃশেষ হয়ে যাবে। এটি সুস্বাদুও বটে।

সম্প্রতি ভারতের হায়দ্রাবাদের একটি সংস্থা অভিনব এমন জিনিস আবিষ্কার করে চমকে দিয়েছে। সংস্থাটি এমন একটি চায়ের কাপ তৈরি করেছে, যা খেয়ে ফেলা যায়।

শুনে অবাক হলেও এটাই সত্যি। কাপে থাকবে চা। আর সেই চা শেষ হওয়ার পর কড়মড় করে খেয়ে ফেলতে পারবেন কাপটা। ঠান্ডা বা গরম, যে কোন পানীয় খাওয়া যাবে সেই কাপে।

সংস্থাটি জানায়, প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে তৈরি হয়েছে কাপটি। এর নাম দেওয়া হয়েছে ‘ইট কাপ’। যেসব জিনিস দিয়ে চায়ের কাপ সাধারণত বানানো হয়, তা কমানোর জন্যই এ অভিনব উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। যেমন অনেক ক্ষেত্রে কাগজের কাপ ব্যবহার করা হয়, আর তার জন্য গাছ কাটার প্রয়োজন হয়। তাই নতুন এই চায়ের কাপ।

সংস্থাটির নির্বাহী পরিচালক অশোক কুমার বলেন, ‘জিনিসটি প্লাস্টিক ও কাগজের কাপের বদলে ব্যবহার করা যাবে। এর ফলে কিছুটা হলেও কার্বনের প্রভাব কমবে। পরিবেশ দূষণ থেকেও মুক্তি পাওয়া যাবে। কারণ মানুষ ওয়ান টাইম কাপে চা খেয়ে যেখানে-সেখানে ফেলে রাখে মানুষ।’

চা ছাড়াও এ কাপে স্যুপ, ডেজার্ট, দই থেকে শুরু করে গরম বা ঠান্ডা যে কোন পানীয় খাওয়া যাবে। প্রায় ৪০ মিনিট পর্যন্ত কোন জিনিস রাখা যাবে কাপে।

ততক্ষণ পর্যন্ত কাপটা মচমচে থাকবে। তাই মচমচে থাকতেই ব্যবহার করুন কাপটি। ব্যবহার শেষে খেয়ে ফেলুন।

বিষেরবাঁশি.কম/ডেস্ক/মৌ দাস

Categories: আন্তর্জাতিক,চিত্র-বিচিত্র,বিনোদন

Leave A Reply

Your email address will not be published.