সোমবার ১ পৌষ, ১৪২৬ ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯ সোমবার

আদিবাসী কিশোরের লাশ উদ্ধার

অনলাইন ডেস্ক: নওগাঁর ধামইরহাটে নদী থেকে রুপলাল হেমরম (১৭) নামের এক আদিবাসী কিশোরের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত রুপলালের লাশ থানা পুলিশ ময়না তদন্তের জন্য নওগাঁ মর্গে প্রেরণ করেছে। বৃহস্পতিবার (১০ অক্টোবর) মধ্যরাতে বীরগ্রাম (বড়মোল্লাপাড়া) এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বৃহস্পতিবার দিনের বেলায় টুটিকাটা বিজ্রের নিকট স্থানীয় নবীন সরেরেন ছেলে জুয়েল সরেন বিয়ের করার জন্য জনৈক উকিল হেমরমের শালিকা সাথী কিস্কু’র মাথায় সিঁদুর পড়িয়ে দেয়। এ নিয়ে অনিল হেমরমের ভাই স্বপন হেমরম ও প্রতিবেশি পরিমল মুরমু, প্রভু হেমরমসহ কয়েকজনের সাথে অনিলের ছেলে রুপলাল হেমরমের বাকবিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে রাত ১০ টার পর সবাই যার যার বাড়ি চলে যায় বলে প্রভু ও পরিমল জানান। কিছুক্ষন পরে প্রভু ও পরিমল অনিলের ছেলে বাড়ীতে রুপলালের খোজ না পেয়ে সবাই রুপলালকে খোজাখুজি করে। এক পর্যায়ে টুটিকাটা ব্রিজের ছোট নদী থেকে প্রভু ও পরিমল রুপলালের মৃত দেহ উদ্ধার করে বলে তারা জানায়।

শুক্রবার (১১ অক্টোবর) সকালে ঘটনার বিষয়টি জানাজানি হলে ধামইরহাট থানার ওসি জাকিরুল ইসলাম ঘটনাস্থলে যান এবং নিহতের মাথায় ও কপালে গভীর ক্ষতের দাগ পাওয়ায় থানা পুলিশ লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করেন এবং জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের চাচা স্বপন হেমরম, প্রভু হেমরম ও পরিমলকে থানায় নিয়ে আসা হয়।

নওগাঁ পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পুলিশ সুপার পদে পদোন্নতি প্রাপ্ত) রাশেদুল হক, পত্নীতলা সার্কেলের দায়িত্বপ্রাপ্ত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আশরাফুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেন।

তবে পরিবারের লোকজন এ বিষয়ে মুখ খুলছেন না এবং এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন চলছে বলে জানা গেছে।

বিষেরবাঁশি.কম/ডেস্ক/মৌ দাস.

Categories: অপরাধ ও দুর্নীতি,সারাদেশ

Leave A Reply

Your email address will not be published.