বৃহস্পতিবার ৯ কার্তিক, ১৪২৬ ২৪ অক্টোবর, ২০১৯ বৃহস্পতিবার

সম্রাটের রিমান্ড শুনানি ১৫ অক্টোবর: সেলিমের ১০ দিনের রিমান্ড চেয়েছে সিআইডি

অনলাইন ডেস্ক: ক্যাসিনোর ঘটনায় গ্রেফতারকৃত ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী ওরফে সম্রাটের শারীরিক কোনো জটিলতা নেই। চিকিৎসক জানিয়েছেন, বাংলাদেশেই তার চিকিৎসা সম্ভব।

আজ বুধবার (০৯ অক্টোবর) দুপুরে সম্রাটের শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে জানতে চাইলে গঠিত মেডিকেল বোর্ডের সদস্য ডা. মহসিন আহমেদ বলেন,সম্রাটের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল। গতকাল মঙ্গলবার (০৮ অক্টোবর) ভর্তির পর থেকে এ পর্যন্ত যতগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়েছে সবগুলো রিপোর্টই ভালো এসেছে। তিনি বলেন, সব পরীক্ষা-নিরীক্ষা মিলিয়ে বর্তমানে তিনি ভালো আছেন। তবে গতরাতে (মঙ্গলবার) তার হৃদস্পন্দন অনিয়মিত ছিল। তাই তাকে আরও ২৪ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে নেয়ার প্রয়োজন রয়েছে কি না জানতে চাইলে ড. মহসিন বলেন, তার কোনো ঝুঁকি নেই এবং তাকে বিদেশে নেয়ারও প্রয়োজন নেই। গুলশান থানায় মানি লন্ডারিং আইনে দায়ের করা মামলায় অনলাইনে ক্যাসিনো খেলার মূলহোতা সেলিম প্রধানসহ দুইজনের ১০ দিন করে রিমান্ড আবেদন করেছে সিআইডি।

সম্রাটের রিমান্ড শুনানি ১৫ অক্টোবর বুধবার ইসমাইল হোসেন চৌধুরী ওরফে সম্রাটকে গ্রেফতার দেখানো পূর্বক ২০ দিনের রিমান্ড শুনানির জন্য দিন ধার্য ছিল। তবে সম্রাট অসুস্থ থাকায় আদালতে উপস্থিত না করায় ঢাকার মহানগর হাকিম সরাফুজ্জামান আনসারী অস্ত্র ও মাদক আইনের পৃথক দুই মামলায় ১০ দিন করে মোট ২০ দিনের রিমান্ড শুনানি জন্য ১৫ অক্টোবর (মঙ্গলবার) দিন ধার্য করেছেন আদালত।

গত সোমবার রাতে রমনা থানা পুলিশ অস্ত্র ও মাদক আইনে মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো-পূর্বক ১০ দিন করে মোট ২০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। পরে ঢাকা মহানগর হাকিম ইয়াসমিন আরা আসামি সম্রাটের উপস্থিতিতে গ্রেফতার দেখানোর আবেদন ও রিমান্ড শুনানির জন্য গতকাল ৯ অক্টোবর দিন ধার্য করেছিলেন।

এদিকে শারীরিক অসুস্থতার কারণে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে ভর্তি থাকায় সাজাপ্রাপ্ত কয়েদি সম্রাটকে আদালতে হাজির করা সম্ভব হচ্ছে না বলে আদালতকে চিঠি দেয় ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার ইকবাল কবির চৌধুরী।

অন্যদিকে রমনা থানায় দায়ের করা মাদক মামলায় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সহ- সভাপতি এনামুল হক আরমানের বিরুদ্ধে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদনের শুনানির জন্য একই দিন ধার্য করেছেন আদালত। এছাড়া তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ৭ অক্টোবর বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে রমনা মডেল থানায় র‌্যাব-১ এর ডিএডি আব্দুল খালেক বাদী হয়ে সম্রাটের নামে অস্ত্র ও মাদক আইনে পৃথক দুটি মামলা করেন। এর মধ্যে যুবলীগের সহ-সভাপতি এনামুল হক আরমানকেও মাদক মামলায় আসামি করা হয়েছে।

এছাড়া মদ্যপ অবস্থায় পেয়ে আটকের সময়ই আরমানকে ছয়মাসের কারাদন্ড দেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। আর কাকরাইলের কার্যালয়ে বন্যপ্রানীর চামড়া সংরক্ষণের দায়ে সম্রাটকেও একই মেয়াদে সাজা দেওয়া হয়। এরপর সম্রাটকে কেরানীগঞ্জে অবস্থিত ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়। আর আরমানের জায়গা হয় কুমিল্লা কারাগারে। কারাগারে থাকাকালে গত মঙ্গলবার বুকে ব্যথা নিয়ে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটউকে ভর্তি হন সম্রাট।

সেলিম প্রধানের ১০ দিনের রিমান্ড চেয়েছে সিআইডি রাজধানীর গুলশান থানায় মানি লন্ডারিং আইনে দায়ের করা মামলায় অনলাইনে ক্যাসিনো খেলার মূলহোতা সেলিম প্রধানসহ দুইজনের ১০ দিন করে রিমান্ড আবেদন করেছে সিআইডি। পরে আদালত এ বিষয়ে শুনানির জন্য ১৩ অক্টোবর দিন ধার্য করেছেন।

গতকাল বুধবার ঢাকা মহানগর হাকিম সাব্বির ইয়াসির আহসান চৌধুরীর আদালতে এ রিমান্ড আবেদন করেন সিআইডির পুলিশ পরিদর্শক শহিদুল ইসলাম। মামলার অপর দুই আসামিরা হলেন, রোমান ও আখতারুজ্জামান।

একই থানায় (গুলশান থানা) মাদক আইনে দায়ের করা অন্য মামলায় ৪ দিনের রিমান্ড শেষে গত মঙ্গলবার আদালতে নেয়া হলে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম মাসুদুর রহমান এ আদেশ দেন।

এছাড়া র‌্যাবের অভিযানে বাসা থেকে হরিণের চামড়া উদ্ধারের ঘটনায় বন্যপ্রানী সংরক্ষণ আইনে সেলিম প্রধানকে ৬ মাসের কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

উল্লেখ্য, গত ৩০ সেপ্টেম্বর দুপুরে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের থাই এয়ারওয়েজের ব্যাংককগামী একটি ফ্লাইট থেকে সেলিম প্রধানকে আটক করে র‌্যাব। গোপন তথ্যের ভিত্তিতে ফ্লাইট ছাড়ার আগ মুহূর্তে তাকে আটক করা হয়। তিনি বাংলাদেশে অনলাইনে ক্যাসিনো ব্যবসার মূলহোতা বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

বিষেরবাঁশি.কম/ডেস্ক/মৌ দাস.

Categories: জাতীয়

Leave A Reply

Your email address will not be published.