বৃহস্পতিবার ৯ কার্তিক, ১৪২৬ ২৪ অক্টোবর, ২০১৯ বৃহস্পতিবার

বাংলাদেশ থেকে পাঠানো ইলিশের প্রথম চালান বেনাপোলে আটকে আছে

অনলাইন ডেস্ক: সনাতন হিন্দু সম্প্রদায়ের সব থেকে বড় ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা উপলক্ষে ভারতে ৫০০ টন ইলিশ রফতানির সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

এরই অংশ হিসেবে রোববার (২৯ সেপ্টেম্বর) প্রথম চালানে বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ২৪ মেট্রিক টন ইলিশ মাছ ভারতে রফতানির কথা থাকলেও কাগজপত্র ও মাছের ট্রাক না আসায় রফতানি হয়নি।

কাস্টমস কর্তৃপক্ষ বলছে মাছ রফতানির জন্য কেউ কোন কাগজপত্র তাদের দপ্তরে দাখিল করেনি। তবে আজ সকালে কাস্টম হাউজে কাগজপত্র দাখিল করা হবে বলে জানা গেছে।

ইলিশ মাছ রফতানিকারক প্রতিষ্ঠানের বেনাপোলের সিএন্ডএফ এজেন্ট এমি এন্টারপ্রাইজের প্রতিনিধি মহিদুল হক জানান, রোববার বিকালে ৬ ট্রাক মাছের মধ্যে মাত্র এক ট্রাক মাছ আমরা হাতে পেয়েছি। আজ রাতের মধ্যে আরো ৫ ট্রাক মাছ আসার সম্ভাবনা রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আজ সকালে মাছ রফতানির প্রয়োজনীয় কাগজপত্র আমরা কাস্টমে দাখিল করবো। তারপর মাছ রফতানি হবে।প্রতি কেজি ইলিশ ৬ ডলার মূল্যে রফতানি করা হচ্ছে।

ফলে বাংলাদেশি টাকা প্রতিকেজির দাম পড়বে ৫০০ টাকা করে। ভারত ও বাংলাদেশ দুই দেশের কাস্টমস থেকে শুল্কমুক্ত সুবিধায় ইলিশের এ চালান ছাড় করা হবে বলে জানান তিনি।

বেনাপোল চেকপোস্ট কাস্টমস কার্গো সুপার নাসিদুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, রোববার ইলিশ মাছ রফতানির খবর ছিল। কিন্তু ইলিশ মাছ রফতানির কোন কাগজ সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা পর্যন্ত কেউ আমাদের কাছে কোন সিএন্ডএফ দাখিল করেনি। মাছের কেন ট্রাকও আমাদের রিপোর্ট করেনি।তবে সোমবার সকালে দাখিল করবে বলে জানতে পেরেছি। কাগজপত্র দাখিল করলে দ্রুত পণ্য চালানটি ছাড় দেওয়া হবে।

বিষেরবাঁশি.কম/ডেস্ক/মৌ দাস.

Categories: আন্তর্জাতিক

Leave A Reply

Your email address will not be published.