শনিবার ৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ ১৭ নভেম্বর, ২০১৮ শনিবার

পাহাড় ধসে তিন জেলায় ২২ জনের মৃত্যু

পাহাড় ধসে তিন জেলায় ২২ জনের মৃত্যু

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: ভারী বর্ষণে রাঙ্গামাটি, চট্টগ্রাম, ও বান্দরবানে পাহাড় ধসে এখন পর্যন্ত ২২ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। সোমবার রাত থেকে মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত এসব নিহতের খবর পাওয়া যায়। নিহতদের নাম-পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায় নি। তবে নিহতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন। প্রতিনিধি ও সংবাদদাতাদের পাঠানো খবর।

রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি জানান, রাঙ্গামাটিতে টানা বর্ষণে সৃষ্ট পাহাড় ধসে সোমবার রাত থেকে মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত ১০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। রাঙ্গামাটির বিভিন্ন স্থানে এসব মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

ফায়ার সার্ভিস কর্মী ও স্থানীয়রা জানিয়েছে, এ পর্যন্ত ১০ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে। নিহতদের সকলের নাম পরিচয় জানা যায় নি। এখনও ওই এলাকায় বৃষ্টি হচ্ছে।

চট্টগ্রাম অফিস জানায়, টানা ও ভারী বৃষ্টিতে পাহাড় ধসে চট্টগ্রামের চন্দনাইশ ও রাঙ্গুনিয়ায় ৮ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। আজ মঙ্গলবার ভোরে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়। চট্টগ্রামের জন সংযোগ কর্মকর্তা এ তথ্য জানিয়েছেন।

এদিকে, চট্টগ্রাম নগরীতে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় থেকে দুর্গতদের সরাতে জেলা প্রশাসনের ২টি টিম কাজ করছে। একটি টিম নগরীর লালখান বাজার মতিঝরনা এলাকায় ও অপর টিম বায়েজিদ ও মুরাদপুর এলাকা নিয়োজিত আছে।

চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মো. জিল্লুর রহমান চৌধুরী ইত্তেফাক অনলাইনকে জানান, অতি বৃষ্টির কারণে চট্টগ্রাম নগরীতে পাহাড় ধসের আশঙ্কা রয়েছে। এ কারণে ঝুঁকিপূর্ণ পাহাড়ি এলাকা থেকে মানুষজনকে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে।
বান্দরবান প্রতিনিধি জানিয়েছেন, বান্দরবানে টানা বৃষ্টিতে পাহাড়ধসে কমপক্ষে চারজনের মৃত্যু হয়েছে। বান্দরবান সদর থানা থেকে জানানো হয়েছে, নিহতদের মধ্যে ১ জন কালাঘাটার বাসিন্দা। তার মৃতদেহ বান্দরবান সদর হাসপাতালে রাখা আছে।

মঙ্গলবার ভোরে বান্দরবান শহরের লেমু ঝিড়ি পাড়া, কালাঘাটা ও ক্যচিংঘাটা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন বলেও জানা গেছে। নিখোঁজও রয়েছেন কয়েকজন।

বিষেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/হৃদয়

Categories: সারাদেশ

Leave A Reply

Your email address will not be published.