বৃহস্পতিবার ৯ কার্তিক, ১৪২৬ ২৪ অক্টোবর, ২০১৯ বৃহস্পতিবার

মমিন হত্যার ফাঁসির সাজাপ্রাপ্ত দুই ও যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত ৩ আসামী পলাতক

অনলাইন ডেস্ক: রাজধানীর কাফরুলে আলোচিত কলেজ ছাত্র কামরুল ইসলাম মমিন হত্যা মামলায় পুলিশ এখনও ফাঁসির রায় পাওয়া দুই আসামীকে আটক করতে পারেনি। ওই মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত ৩ আসামীও পলাতক রয়েছে।

২০০৫ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর কাফরুলের ২৬৭, উত্তর ইব্রাহিমপুরের বাসার সামনের রাস্তায় তৎকালীন মতিঝিল থানার ওসি রফিকুল আলমের ভাড়াটিয়া ক্যাডার বাহিনীর গুলিতে ঢাকা কমার্স কলেজের ব্যবস্থাপনা বিভাগের ৩য় বর্ষের ছাত্র কামরুল ইসলাম মমিন নিহত হয়। এ ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় আদালত সাবেক ওসি রফিকুল আলম, সাখাওয়াত হোসেন জুয়েল ও তারেক ওরফে জিয়া।

এদের মধ্যে সাবেক ওসি রফিক গ্রেফতার অবস্থায় কারাগারে মারা যান। বাকি দুই ফাঁসির আসামী আজও পলাতক। যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামীরা হলেন, ‘শীর্ষ সন্ত্রাসী হাবিবুর রহমান তাজ, ঠোঁট উঁচা বাবু, মনির হাওলাদার, জাফর ও শরীফ উদ্দিন।’ এদের মধ্যে তাজ ও বাবু গ্রেফতার হয়েছেন।

এ ব্যাপারে গতকাল মমিনের বড় ভাই শামসুল ইসলাম সুমন বলেন, হত্যার পর তার বাবা আব্দুর রাজ্জাক নিজে বাদী হয়ে ওসি রফিকসহ ২৬ জনের নাম উল্লেখ করে কাফরুল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

২০১১ সালের ২০ জুলাই ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-৪ এর বিচারক মো: রেজাউল ইসলাম ৩ জনকে ফাঁসি ও ৬ জনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ডে দন্ডিত করেন। ২০১৭ সালের ৭ ডিসেম্বর হাইকোর্টের বিচারপতি ভবানী প্রসাদ সিংহ ও বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলাম নিম্ন আদালতের রায় পুনর্বহাল রাখেন।

সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামীদের গ্রেফতারের ব্যাপারে পুলিশের পক্ষ থেকে কোন উদ্যোগ নেই। তারা আজো আতংকে আছেন। পলাতকদের গ্রেফতার করে রায় তিনি দ্রুত কার্যকর করার দাবি করেন।

বিষেরবাঁশি.কম/ডেস্ক/মৌ দাস.

Categories: অপরাধ ও দুর্নীতি,সারাদেশ

Leave A Reply

Your email address will not be published.