শনিবার ২ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ ১৬ নভেম্বর, ২০১৯ শনিবার

রেলস্টেশনের সেই রানু মানুষের সংবর্ধনা পেয়ে কাঁদছেন

অনলাইন ডেস্ক: তারাই রানুকে সংবর্ধনা দিলো যারা কয়দিন আগেও রানুকে পাগল ভাবতো, তার গান শুনে যারা ভিক্ষা দিতো । বলিউডে গান রেকর্ডিং করে নিজ এলাকা রানাঘাটে ফিরেছেন রানু। এলাকার মানুষের দয়ায় যার খাবার জুটতো, তিনি এখন সবার গর্ব। রানাঘাটে ফিরতেই রানু মণ্ডলকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান সবাই।

এলাকার মানুষের শুভেচ্ছা পেয়ে চোখের পানি ধরে রাখতে পারেননি রানু। রূপকথার গল্পের মতো হঠাৎ করে পাল্টে গেলো তার জীবন। যারা এতো দিন তাকে মূল্যয়ন দেয়নি তারাই আসছে ফুল নিয়ে। নিজের চোখ যেন বিশ্বাস করতে পারছে না রানু মণ্ডল। শুধু রানাঘাটেই নয়, এখন পুরো ভারতবর্ষের চোখের মণি হয়ে গেছেন তিনি।

এলাকাবাসীর কাছ থেকে সংবর্ধনা পেয়ে আনন্দ প্রকাশ করেন রানু। মুম্বাইয়ে গান রেকর্ডিং করার অভিজ্ঞতা সবার সঙ্গে শেয়ার করেন। তিনি জানান, হিমেশের সঙ্গে গান করে তিনি খুব খুশি।

রানু মণ্ডলের গাওয়া ‘এক পেয়ার কা নাগমা’ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পর তাকে ছেড়ে যাওয়া মেয়েরা ফিরে এসেছে তার কাছে। পাগলি বেশে থাকা রানুকে বিউটি পার্লারে নিয়ে ঝকঝকে পরিপাটিও করা হয়েছে। দামি শাড়ি পরছেন রানু। ‘সারেগামা’ কোম্পানি তাদের ক্যারাভা উপহার দিয়েছে রানুকে।

ভবঘুরে রানু মণ্ডল পথে-ঘাটে গান গেয়ে বেড়াতেন। সেখান থেকে সোজা বলিউডে পাড়ি, তারপর হিমেশ রেশমিয়ার সঙ্গে ডুয়েট রেকর্ড করে ফিরলেন কলকাতায়। হিমেশের সঙ্গে রানুর গাওয়া গানটি অংশ বিশেষ শুনেই চমকে গেছে মানুষ। পুরো গানটি শোনার অপেক্ষায় সবাই।

রানুই পথে পথে ‘ফুলো কা তারো কা’, ‘পানা কি তামান্না’ বা ‘তেরী মেরী প্রেম কাহানী’ গানগুলো গেয়ে বেড়াতেন। সম্প্রতি কয়েকজন এই গানের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করেন। তারপরই মুহূর্তে ভাইরাল হয় সেই গান। বাকি গল্প সবার জানা।

এখন অনেক গানের অফার পাচ্ছেন রানু। কলকাতার এক পূজার থিম সন গেয়েছেন ইতিমধ্যে। হিমেশের সঙ্গে গেয়েছেন ‘হ্যাপি হার্ডি এন্ড হীর’ সিনেমার গান।

বিষেরবাঁশি.কম/ডেস্ক/নাদিম

Categories: আন্তর্জাতিক,চিত্র-বিচিত্র,বিনোদন

Leave A Reply

Your email address will not be published.