বৃহস্পতিবার ৩০ কার্তিক, ১৪২৬ ১৪ নভেম্বর, ২০১৯ বৃহস্পতিবার

মেয়াদোত্তীর্ণ খাবার বিক্রির অপরাধে স্বপ্ন এক্সপ্রেস সহ আরো দুইটি প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

অনলাইন ডেস্ক: সোমবার (১৯ আগস্ট) দুপুরে নারায়ণগঞ্জ শহরের মাসদাইরে ‘স্বপ্ন এক্সপ্রেস’ সুপারশপে ম্যাজিস্ট্রেট ঢুকতেই নাকে মাছ পচা উটকো দুর্গন্ধ ভেসে আসে। নাকে কাপড় চেপে ভেতরে প্রবেশ করে শপের ভিতরে মাছের সামনে যেতেই দেখা যায় মাছ পঁচে মাথা থেকে শরীর আলাদা হয়ে আছে। পেট খসে গিয়ে নাড়িভুড়ি বেরিয়ে এসেছে। এমন অবস্থাতেই স্বপ্ন এক্সপ্রেসে মাছ বিক্রি করা হচ্ছিল ।

আজ দুপুরে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রহিমা আক্তারের নেতৃত্বে অভিযান চলাকালে এমন চিত্র দেখা যায়। অভিযানে আরো উপস্থিত ছিলেন পাট অধিদপ্তরের মুখ্য পরিদর্শক আতিকুল ইসলাম মজুমদার।

স্বপ্ন এক্সপ্রেসে ৬১০ টাকা কেজি দরে গলদা চিংড়ি বিক্রি করা হচ্ছিল। প্রায় আড়াই কেজির মত পঁচা গলা গলদা চিংড়ি সাজিয়ে রাখা ছিল। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পঁচা চিংড়ি আলাদা করার নির্দেশ দিলে আড়াই কেজির মধ্যে এক কেজি চিংড়ি পঁচা গলা পাওয়া যায়। যেগুলোর মাথা শরীর থেকে আলাদা হয়ে গেছে। সাজিয়ে রাখা পুটি মাছের পেট খসে গিয়ে নাড়িভুড়ি বেরিয়ে আসছে। সেখান থেকেও মারাত্মক দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। ৫শ গ্রাম পঁচা পুটি সেখান থেকে পাওয়া যায়। এছাড়া সেখানে থাকা ছোট চিংড়ি থেকে আরো প্রায় ১শ গ্রাম পঁচা বের হয়।

সদ্য উদ্বোধন করা সুপার শপটি এসব পঁচা গলা মাছ ভোক্তাদের কাছে বিক্রি করে আসছিল। এছাড়া পাটজাত পণ্যের ব্যবহার বাধ্যতামূলক করায় সরকার সব ধরনের প্লাস্টিকের ব্যাগ ও বস্তা নিষিদ্ধ করার পরেও তাঁরা প্লাস্টিকের ব্যাগ ব্যবহার করে আসছিল। যে কারণে প্রতিষ্ঠানটিকে ভোক্তা অধিকার আইন ও পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামূলক ব্যবহার ২০১০ এর ৫১নং আইন অনুযায়ী ২০হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

শুধু স্বপ্ন নয় এর পাশে থাকা একটি গ্রোসারি শপ ও একটি কেক হাউজেও দেখা গেছে আমদানি করা প্রতিষ্ঠানের সিলবিহীন পন্য বিক্রি করতে। অধিকাংশ ভোগ্য পণ্যেই উৎপাদন মেয়াদ ও মেয়াদোত্তীর্ণের নির্দিষ্ট তারিখ নেই। বিএসটিআই এর অনুমোদন ছাড়াই ‘কক ক্রাম্বস’ নামক কেক হাউজটি দীর্ঘদিন ধরে বিস্কুট, পাউরুটি অন্যান্য পন্য বিক্রি করে আসছিল।

এছাড়া মেয়াদ উল্লেখ না করে কেক সাজিয়ে রাখা হয়েছিল। বিএসটিআই এর অনুমোদ ছাড়া বিস্কুট, পাউরুটি বিক্রি ও কেকের কোনো মেয়াদ উল্লেখ না থাকায় প্রতিষ্ঠানটিকে ভোক্তা অধিকার আইনে ৫হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

আমদানীকারকের সীলবিহীন পন্য বিক্রয় ও প্লাস্টিকের ব্যাগে পন্য বিক্রি করায় ‘দা নিউ গ্রোসারি’কে ২০হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। একই সাথে প্রত্যেককে সতর্ক করে দেওয়া হয় যাতে প্লাস্টিকের প্যাকেটে থাকা পন্য বিক্রি করা না হয়। আবারো এই অবস্থা পাওয়া গেলে আরো কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার হুমকি দিয়েছেন।

বিষেরবাঁশি.কম/ডেস্ক/মৌ দাস.

Categories: অপরাধ ও দুর্নীতি,নারায়ণগঞ্জের খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.