শনিবার ৯ ভাদ্র, ১৪২৬ ২৪ আগস্ট, ২০১৯ শনিবার

বোনকে উত্যক্ত করার প্রতিবাদে দুই ভাইকে পিটিয়ে জখম, চেইন ছিনতাই

অনলাইন ডেস্ক: ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বাঞ্জারামপুর উপজেলায় বোনকে উত্যক্ত করার প্রতিবাদ করায় দুই ভাইকে পিটিয়ে জখম করে বোনের গলা থেকে দেড় ভরি স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত শনিবার (১৩ই জুলাই) সকালে বাঞ্জারামপুর উপজেলার দক্ষিণ বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, নারায়ণগঞ্জের সরকারি তোলারাম কলেজ থেকে বাংলা বিভাগের মাস্টার্স পাশ করা এক তরুনিকে ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য নজরুল ইসলাম নজুর ছোট ভাই মোহন মিঞা ইচ্ছাকৃত ভাবে ধাক্কা দেওয়ায় পাশে থাকা দুই ভাই প্রতিবাদ করলে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে মোহন ও তার দলবল তাদেরকে এলোপাথারি ভাবে পিটিয়ে আহত করে।

আহত বাংলাদেশ নৌবাহিনীর মেকানিক্যাল টেকনিশিয়াল নোমান হোসেন বলেন, আমরা দুই ভাই ও বোন বাঞ্জারামপুর উপজেলার দক্ষিণ পাড়ায় এক আত্মীয়ের বাসায় যাচ্ছিলাম। যাওয়ার পথে নজরুল মেম্বারের ছোট ভাই মোহন আমার বোনকে ইভটিচিং করে। আমরা প্রতিবাদ করায় মোহন ও তার দলবল আমাদের দুই ভাইকে মারধোর করে। আমাদের আটক করে মেরে ফেলারও হুমকি দেয়। আমি সামরিক বাহিনীর লোক বলা স্বত্বেও তারা বলে, “তোরা নৌবাহিনীর লোক তো কি হয়েছে, তোকে রামদা-বটি দিয়ে কেটে নদীতে ভাসিয়ে দিবো।” এই বলে তার বোনের গলায় থাকা দেড় ভরি স্বর্ণের চেইন ছিনতাই করে পালিয়ে যায়।

তাৎক্ষণিত ভাবে এলাকাবাসী আহত দুই ভাইকে উদ্ধার করে বাঞ্জারামপুর সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করায়। তারা দুই ভাই এখন চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন। ঘটনার পর থেকে হামলাকারি মোহন ও তার দলবল পলাতক রয়েছে।

এ ব্যাপারে নজরুল ইসলাম নজু বলেন, আমার ছোট ভাই মোহন আমাকে বলেছে ওই মেয়ে নাকি তার বিরুদ্ধে গায়ে হাত দেওয়ার অভিযোগ তুলেছে। এই নিয়ে কথা কাটাকাটি করার এক পর্যায়ে মেয়ের দুই ভাই মোহনকে ঘুষি দিয়েছে, পরে আমার ভাই ওদের দুই ভাইকে কিল ও ঘুষি দিয়েছে।

বিষেরবাঁশি.কম/ডেস্ক/মৌ দাস.

Categories: অপরাধ ও দুর্নীতি,নারায়ণগঞ্জের খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.