সোমবার ৭ শ্রাবণ, ১৪২৬ ২২ জুলাই, ২০১৯ সোমবার

নিজের ছেলের কাছেই প্রতারণার স্বীকার বৃদ্ধ মা-বাবা

অনলাইন ডেস্ক: আড়াইহাজারে ওসির হস্তক্ষেপে এক বৃদ্ধা দম্পতির বসতভিটা উদ্ধার হয়েছে। তাদেরই সন্তান তাদের সাথে প্রতরণা করে ২ শতাংশ জমি লিখে নেওয়ার কথা বলে লিখে নেয় পুরো ১৭ শতাংশ ভিটা। পরে বিষয়টি তারা জানতে পেরে প্রথমে ছুঁটে যান স্থানীয় মাতাব্বদের কাছে। প্রতিকার না পেয়ে ওসির শরণাপন্ন হন। এএসআই আমিনুল ওই বৃদ্ধার ছেলে আনারকে তাৎক্ষণিক আটক করে।

শুক্রবার (১২ জুলাই) স্থানীয় মাহমুদপুর ইউপির জোকারদিয়া নয়াপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, বৃদ্ধা সামছু উদ্দিন দম্পতির দুই ছেলে ও তিন মেয়ে। এদের মধ্যে এক ছেলে প্রবাসী। আরেক ছেলে আনার বাড়িতে বাবা-মার সঙ্গেই বসবাস করছেন। বৃদ্ধা সামছুদ্দিন বলেন, ছোট ছেলে আনার তার বোন জামাতা দুলালের ১ লাখ ৬০ হাজার টাকা ঋণ পরিশোধ করে দিবে বলে আমাকে ২ শতাংশ জমি লিখে দিতে অনুরোধ করে। এতে আমি ও আমার স্ত্রী সম্মতি দেই। কিন্তু ছেলে প্রতারণা করে আমাদের কাছ থেকে শেষ সম্বল পুরো বসতভিটা ১৭ শতাংশ জমি লিখে নেয়। জানতে পেরে প্রথমে স্থানীয় মাতাব্বদের কাছে বিচার দিয়ে কোনো প্রতিকার পাইনি। তিনি আরও বলেন, ‘ওসি সাহেবের হস্তক্ষেপে শেষ পর্যন্ত আমার শেষ সম্বল বসতভিটাটুকু ফিইরা পাইছি। ছেলের প্রতারণার কবল থেকে তিনি আমাদের রক্ষা করেছেন। তার মতো ওসি যেন দেশের সব থানায় থাকেন। আমি তার জন্য আল্লাহর কাছে দোয়া করব।’

এদিকে আড়াইহাজার থানার ওসি নজরুল ইসলাম বলেন, বৃদ্ধা দম্পতির ছেলে মিথ্যা কথা বলে তাদের শেষ সম্বলটুকু লিখে নেয়। তারা থানায় এসে আমাকে বিষয়টি জানায়। এক পর্যায়ে আমার কক্ষে দুজনই অজ্ঞান হয়ে পড়েন। পরে ছেলেকে আটক করে থানায় আনলে বাবা-মাকে জমি ফিরিয়ে দিতে রাজি হয় সে। ওসি আরও বলেন, অসহায় এ বৃদ্ধা দম্পতির পাশে দাঁড়াতে পেরে আমি নিজেকে ধন্য মনে করছি। ভালো কিছু করতে পারলে আমাদের পুলিশ বাহিনীর ভাবমূর্তিও উজ্জল হয়।

বিষেরবাঁশি.কম/ডেস্ক/মৌ দাস.

Categories: অপরাধ ও দুর্নীতি,নারায়ণগঞ্জের খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.