সোমবার ৭ শ্রাবণ, ১৪২৬ ২২ জুলাই, ২০১৯ সোমবার

ফেসবুকে পরিচয়: ডেকে এনে মুক্তিপন হিসেবে ৪০ হাজার টাকা আদায়

অনলাইন ডেস্ক: সিদ্ধিরগঞ্জে গোদনাইল এলাকার রুবেলের সাথে রুপগঞ্জ এলাকার মিঠুনের ফেসবুকে পরিচয়। অত:পর বন্ধুত্ব, আর সেই বন্ধুর ডাকেই মিঠুন সিদ্ধিরগঞ্জে ছুটে আসলেন। আর সেই বন্ধুকে অপহরন করে আটকে রেখে ৪০ হাজার টাকা মুক্তিপন আদায় করে ছেড়ে দিল অপহরনকারী বন্ধু রুবেল। গত সোমবার দুপুরে সিদ্ধিরগঞ্জের জালকুড়ি আরকে পার্ক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। অপহৃত মিঠুন (২৪) নারায়ণগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ উপজেলার বরালো এলাকার সূর্যত আলীর ছেলে। ওই দিন রাতেই অপহরনকারীদের কাছ থেকে মুক্তি পেয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় এসে মিঠুন অভিযোগ করেন।

অভিযোগের সূত্র ধরে পুলিশ ৪ অপহরনকারীকে গ্রেফতার করে। সাথে মুক্তিপণ আদায়ের ৪০ হাজার টাকার মধ্যে ১৫ হাজার টাকা ও ৭ টি মোবাইল ফোনসহ একটি রূপার চেইন উদ্ধার করে। গ্রেফতারকৃত অপহরনকারীরা হলো, রফিকুল ইসলাম (২৩), আলাউদ্দিন (২৪), মো: শুভ (২৩). ইমন (১৮)। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মূল অপহরণকারী (ফেসবুকের বন্ধু) রুবেল ওরফে সুজন (২৫) পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় অপহৃত মিঠুন গতকাল সোমবার দুপুরে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় মামলা করলে গ্রেফতারকৃত আসামীদের আদালতে প্রেরণ করে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি (সার্বিক) মীর শাহীন। পারভেজ জানান, রূপগঞ্জ উপজেলার মিঠুনের সাথে ফেসবুকে বন্ধুত্ব হয় সিদ্ধিরগঞ্জের জালকুড়ি এলাকার রুবেল ওরফে সুজনের। প্রায়ই তারা ফেসবুকে কথা বলতো এবং উভয়েই উভয়কে বেড়াতে আসতে বলতো।

সেই সূত্র ধরে গত সোমবার দুপুরে মিঠুন জালকুড়ি বাসস্ট্যান্ডে আসে। মিঠুনকে সেখান থেকে রুবেল তার সহযোগী ইমনের মাধ্যমে জালকুড়ি আরকে পার্কের পিছনে নিয়ে আসে। সেখানে রুবেল ও তার ৪ সহযোগী মিঠুনকে আটকে রেখে মারধর করে তার সাথে থাকা টাকা-পয়সা, মোবাইল ও একটি রূপার চেইন ছিনিয়ে নেয়। পরে রুবেল তার মোবাইল থেকে মিঠুনের ভগ্নিপতির কাছে ফোন করে মুক্তিপণ হিসেবে ৮০ হাজার টাকা দাবী করলে তিনি বিকাশের মাধ্যমে রুবেলকে ৪০ হাজার টাকা পাঠায়। টাকা পেয়ে অপহরণকারীরা মিঠুনকে ছেড়ে দেয়। ছাড়া পেয়ে মিঠুন থানায় এসে অভিযোগ করলে তৎক্ষণাৎ অভিযান চালিয়ে পুলিশ ৪ অপহরনকারীকে গ্রেফতার করে। আসামীদের আজ সকালে মঙ্গলবার অপহরন মামলায় আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

বিষেরবাঁশি.কম/ডেস্ক/মৌ দাস.

Categories: অপরাধ ও দুর্নীতি,নারায়ণগঞ্জের খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.