শুক্রবার ১০ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ ২৪ মে, ২০১৯ শুক্রবার

ক্লিন নারায়ণগঞ্জ গড়তে চাই: এসপি হারুন

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ বলেছেন, এই নারায়ণগঞ্জ ফুটপাত মুক্ত, চাঁদাবাজ মুক্ত ও সন্ত্রাস মুক্ত নারায়ণগঞ্জ হবে। সকলে মিলে উদ্যোগ গ্রহণ করলে এই নারায়ণগঞ্জ ক্লিন নারায়ণগঞ্জ হবে। আমি ক্লিন নারায়ণগঞ্জ গড়তে চাই।

শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) বেলা ১২টায় চাষাড়ায় শহীদ মিনারে বিডি ক্লিন নারায়ণগঞ্জের কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

বিডি ক্লিনের উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে তিনি বলেন, আপনারাও আমাদের তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করবেন। কে কোথায় চাঁদাবাজি, সন্ত্রাসী, মাদক ব্যবসা করছে সে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করবেন। ক্লিন নারায়ণগঞ্জ তৈরির একটা পার্ট হবেন।

তিনি আরো বলেন, পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের মতো সারা বাংলাদেশেও আবহাওয়া দূষিত হচ্ছে। ময়লা-আবর্জনা থেকে রোগজীবানু ছড়িয়ে পড়ছে। আসলে দশে মিলে করি কাজ বলে একটা কথা আছে। আমাদের একার পক্ষে এসব কাজ করা সম্ভব না। প্রতিটি শহরের কোন না কোন পয়েন্টে যদি একত্রে কাজটি করি তাহলে একসাথে ৬৪ জেলায় কাজটি হয়ে যাবে। প্রতিটি জেলায় ২০০ জন লোক করে যদি কাজটি করি তাহলে এ উদ্যোগ আরো প্রসারিত হবে।

বিডি ক্লিনের কার্যক্রমে পাশে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করে পুলিশ সুপার বলেন, যতবারই আপনারা ডাকবেন আমরা পাশে থাকবো। এই যাত্রা যেন মাঝপথে থেমে না যায় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। আমরা চাই জাতির জনকের স্বপ্নের সোনার বাংলা।

হারুন অর রশীদ বলেন, বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। আজ বিদ্যুতের জন্য হাহাকার করতে হয় না। রাস্তাঘাট প্রসারিত হচ্ছে, স্বাভাবিক মানুষের জীবনযাত্রার মান বেড়েছে, অভাব অনটন দূর হয়েছে। কিন্তু আমাদের রাস্তাঘাটে ময়লা জমে আছে। যদিও এটা সিটি কর্পোরেশনের কাজ কিন্তু তাদের লোকবল কম থাকার কারণে তারা কাজটি করতে পারছে না। তারাও তাদের কাজটি করবেন এবং আমরাও স্বেচ্ছায় কাজটি করবো।

পুলিশ সুপারের বক্তব্যের আগে বিডি ক্লিন নারায়ণগঞ্জ এর উপদেষ্টা ও মানবজমিনের স্টাফ রিপোর্টার বিল্লাল হোসেন রবিন বলেন, পরিচ্ছন্ন ও জীবাণুমুক্ত বাংলাদেশের স্বপ্ন নিয়ে মাত্র ২৪ জন সদস্য নিয়ে ২০১৬ সালের ৩ জুন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস থেকে বিডি ক্লিন যাত্রা শুরু করে। বর্তমানে ৬৪ জেলায় এ কার্যক্রম ছড়িয়ে পড়েছে। আজকে এর সদস্য সংখ্যা ৫৫ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। গত বছরের ১৩ জুলাই নারায়ণগঞ্জে বিডি ক্লিন নারায়ণগঞ্জে কার্যক্রম শুরু করে। আজ শুক্রবার আমরা বিডি ক্লিন নারায়ণগঞ্জ শাখা পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার ৩০তম পর্ব শেষ করছি। আজ আমরা চাষাড়া শহীদ মিনার ও তার আশেপাশের এলাকায় এ কর্মসূচি পালন করছি। আগামীতে আমরা আরোও বড় পরিসরে একটি কর্মসূচি আয়োজন করব।

পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ তার বক্তব্য শেষে বিডি ক্লিনের সদস্যদের শপথ বাক্য পাঠ করান। এবং নিজেই ঝাড়ু হাতে বিডি ক্লিন নারায়ণগঞ্জ এর ৩০তম কার্যকম উদ্বোধন করে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতায় অংশ নেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুুপার আব্দুল্লাহ আল মামুন, সুভাস চন্দ্র সাহা, নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামরুল ইসলাম প্রমূখ। বিডি ক্লিন নারায়ণগঞ্জের সমন্বয়ক এস এম বিজয়ে সঞ্চলনায় অনুষ্ঠানের বিডি ক্লিনের সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, নাজির হোসেন প্রধান, মিমরাজ রাহুল, কামরুজ্জামান রানা, আমানুর হামিম, প্রসেনজিৎ রায়, রাব্বি হোসেন, কামরুজ্জামান সাগর, সম্রাট শাহ জালাল, ইসরাত জাহান মনিকা, সুমাইয়া স্নীগ্ধা, জামান হোসেন হৃদয়, রফিকুল ইসলাম শান্ত, অনিকা মেহজাবীন আমেনা আক্তার মনিকা, আকাশ দাস, মেহেদী হাসান, অপু রায়হান, আসাদুল হক রাকিব, শরীফ ইসলাম সজিব, রূদ্র সাহা ও জয় দত্ত প্রমুখ।

উল্লেখ্য ২০১৮ সালের ১৩ জুলাই শহরের চাষাড়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের মাধ্যমে বিডি ক্লিন নারায়ণগঞ্জ তাদের কার্যক্রম শুরু করে। এই কার্যক্রম একটি চলমান প্রক্রিয়া। পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গন থেকে ২০১৬ সালের জুনে বিডি ক্লিন ঢাকা এর কার্যক্রম শুরু হয়। এর ধারাবাহিকতায় বিভাগীয় শহরের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। এক সময় ইউনিয়ন এবং গ্রাম পর্যায়ে এই কার্যক্রম প্রসারিত করা হবে। মোটকথা পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ না হওয়া পর্যন্ত বিডি ক্লিন এর কার্যক্রম চলবে।

বিষেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/হৃদয়

Categories: নারায়ণগঞ্জের খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.