রবিবার ১২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ ২৬ মে, ২০১৯ রবিবার

বিদেশ পাঠাবে বলে মানুষকে প্রতারিত করতো পলাশ: এসপি

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: বিমান ছিনতাই চেষ্টায় নিহত মাহমুদ পলাশের বিরুদ্ধে বিদেশে পাঠানোর কথা বলে সোনারগাঁয়ের বিভিন্ন লোকজনের কাছ থেকে টাকা নিয়ে প্রতারণার অভিযোগ রয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ।

সোমবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) বেলা সাড়ে ৩টায় জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা জানান।
এ সময় নিহত মাহমুদ পলাশ সোনারগাঁয়ের বাসিন্দা বলে নিশ্চিত করেছেন জেলা পুলিশ সুপার।

পুলিশ সুপার বলেন, কয়েকদিন পূর্বে সে (পলাশ) সোনারগাঁয়ের বাসায় আসে। তারপর কিছুদিন এলাকায় থেকে আবার চলে যায়। যেহেতু তার বাবা, চাচারা দেশের বাইরে থাকে তাই তার খোঁজ নেয়ার মতো তেমন কেউ ছিল না। তবে সে এলাকাবাসীর কাছ থেকে বিভিন্ন জায়গায় যাবার জন্য টাকা পয়সা নিতো।

তিনি আরো বলেন, এবার নয় তবে এর আগে বিদেশে যাবার কথা বলে সে কিছু লোকের কাছ থেকে টাকা নিয়ে প্রতারণা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

হারুন অর রশীদ বলেন, তার বাবা-মার সাথে কথা বলেছি। সে তার বাবার কাছ থেকে কিছু টাকা নিয়েছিল দুবাই যাবার জন্য। তার নিজের কোন মোবাইল ছিল না। সে তার বোনের মোবাইল ব্যবহার করতো।

এলাকাবাসী ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে, সোনারগাঁ থাকা অবস্থায় সেখানে পলাশের সাথে নায়িকা সিমলাও ছিল।

প্রসঙ্গত, ঢাকা থেকে দুবাইগামী বাংলাদেশ বিমানের ময়ূরপঙ্খী উড়োজাহাজ রবিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) ছিনতাইকারীর কবলে পড়েছিল। প্রায় দুই ঘণ্টার টানটান উত্তেজনার পর সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে চট্টগ্রামের শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে উড়োজাহাজটি ছিনতাই চেষ্টার অবসান হয়। কমান্ডো অভিযানে উড়োজাহাজে থাকা অস্ত্রধারী তরুণ মাহমুদ পলাশ নিহত হন।

এর আগে উড়োজাহাজটি থেকে যাত্রী-ক্রুসহ সবাইকে নিরাপদে সরিয়ে নেওয়া হয়। এ সময় বিমানবন্দর এলাকায় ভিড় করে অসংখ্য মানুষ। এ ঘটনায় সাতটি অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট বাতিল করা হয়। প্রায় সাড়ে চার ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর রাত ১০টার দিকে বিমানবন্দরের স্বাভাবিক কার্যক্রম শুরু হয়।

বিষেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/হৃদয়

Categories: নারায়ণগঞ্জের খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.