শনিবার ৭ আশ্বিন, ১৪২৫ ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ শনিবার

সীতাকুণ্ডে অজ্ঞাত রোগ: প্রথমে জ্বর, তারপর মৃত্যু

  • সূত্রঃ চ্যানেল আই

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের বারো আউলিয়ার ত্রিপুরাপাড়ায় অজ্ঞাত রোগে আরও ৪ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। গত ৪ দিনে এ নিয়ে মোট ৯ শিশুর মৃত্যু হলো।

এখনো হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে আরো ২৮ জন। তাদের মধ্যে ১১ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। অজ্ঞাত এ রোগের কারণ ও ধরণ সম্পর্কে জানতে ঢাকা থেকে আইসিডিডিআরবির একটি টিম সীতাকুণ্ডের উদ্দেশে রওনা দিয়েছে। আক্রান্ত রোগীদের থেকে অসুস্থতার লক্ষণ হিসেবে বিভিন্ন উপাত্ত সংগ্রহ করা হয়েছে।

ত্রিপুরা পাড়ায় ৪শ ৫০টি পরিবার বাস করে। এই এলাকায় গত কয়েকদিন ধরে শিশুদের গায়ে জ্বর, কাশি এবং পরবর্তী শরীরে র‌্যাশ ওঠায় মারা যাচ্ছে একের পর এক শিশু।

চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ড. আজিজুর রহমান সিদ্দিকীসহ প্রশাসনের ঊর্দ্ধতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

ড. আজিজুর রহমান সিদ্দিকী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, রোগটা কি সেটা বুঝতে পারছি না। রোগের ধরণ নিশ্চিত করতে পারছি না। সেজন্য ঢাকার টিম ডাকা হয়েছে। আগে কখনো এমন রোগ দেখিনি।

“অজ্ঞাত রোগে আক্রান্তরা জ্বরে ভুগছেন। জ্বরে আক্রান্ত হওয়ার পরপরই মৃত্যু হচ্ছে তাদের।”

আজিজুর রহমান সিদ্দিকী আরো জানান, প্রতি ঘরে ঘরে গিয়ে ২৮ জনকে অসুস্থ উদ্ধার করে চট্টগ্রামের সংক্রামক ব্যধি হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এবং আরো কেউ আক্রান্ত আছে কিনা তা ঘরে ঘরে গিয়ে দেখা হচ্ছে।

ত্রিপুরা পাড়ার লোকজন জানিয়েছে, পার্শ্ববর্তী ছড়ার পানি পান করে তারা। এ পানি থেকেও রোগ ছড়াতে পারে বলে আশঙ্কা এলাকাবাসীর।

 

বি.বা/ডেস্ক/ক্যানি

Categories: স্বাস্থ্য

Leave A Reply

Your email address will not be published.