মঙ্গলবার ৫ ভাদ্র, ১৪২৬ ২০ আগস্ট, ২০১৯ মঙ্গলবার

শুধু চা খেয়ে বেঁচে আছেন এই নারী!

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: সারাদিন ঈশ্বরের আরাধনা আর সূর্যাস্তের পর এক কাপ কালো চা। ৩০ বছর ধরে এভাবেই বেঁচে রয়েছেন এই নারী। তার নাম পিল্লি দেবী। ‘চা-ওয়ালি চাচি’ নামেও পরিচিত।

ছত্তীসগড়ের কোরিয়ার বাসিন্দা তিনি। পিল্লি দেবীর বর্তমান বয়স ৪৪ বছর। পিল্লি দেবী যখন ১১ বছরের তখন থেকেই শুধু চা খাওয়া শুরু করেন।

তার বাবা রাতি রাম জানিয়েছেন, তখন পিল্লি ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়তো। জনকপুরের পটনা স্কুল থেকে তাকে একটি জেলা স্তরে টুর্নামেন্টে যোগ দিতে নিয়ে যাওয়া হয়। বাড়ি ফেরার পর থেকেই অদ্ভুত আচরণ করতে শুরু করে।

চা ছাড়া কিছু খেতে চাইতো না। পানিও খেতো না। তবে তখন দুধ চা খেতো। আর চায়ের সঙ্গে খেতো বিস্কুট-পাউরুটিও। কিন্তু যত দিন গড়াতে থাকে পিল্লির খাদ্যাভ্যাসে আরো বদল ঘটতে থাকে। অবশেষে শুধু কালো চা খাওয়া শুরু করে সে। বিস্কুট, পাউরুটি কিছুই আর খায় না।

তার ভাই বিহারিলাল রাজভাদে জানান, ঘর থেকে কোথাও বের হয় না সে। সারা দিন শিবের আরাধনা করে। আর সূর্যাস্তের পর এক কাপ কালো চা খায়। এটাই তার রোজকার রুটিন। কিন্তু এতদিন ধরে শুধু চা খেয়ে কীভাবে একজন বেঁচে থাকতে পারেন?

কোরিয়া জেলা হাসপাতালের চিকিৎসক এসকে গুপ্ত জানান, একজন মানুষের পক্ষে এটা একেবারেই অসম্ভব। চা-এ খুবই সামান্য ক্যালোরি রয়েছে। মানুষের ন্যূনতম দৈনন্দিন ক্যালোরির চাহিদাও পূর্ণ হয় না চা থেকে।

তিনি বলেন, খুবই আশ্চর্যের বিষয়। বিজ্ঞানের নিয়মে, এত বছর ধরে চা খেয়ে একজন বাঁচতে পারেন না। নবরাত্রির সময় টানা ৯ দিন উপোস করে থাকা আর ৩৩ বছর ধরে চা উপোস করে থাকা এক নয়। এটা অসম্ভব।

তার ভাই বলেন, তার এই জীবনযাত্রা আমাদের কাছেও একটা বিস্ময়। অনেক হাসপাতাল, ডাক্তার করেছি। কিন্তু তিনি কেন এরকম করে তা জানা যায়নি। তার কোনো অসুখও নেই। তথ্যসূত্র : আনন্দবাজার

বিষেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/হৃদয়

Categories: চিত্র-বিচিত্র

Leave A Reply

Your email address will not be published.