শনিবার ৯ চৈত্র, ১৪২৫ ২৩ মার্চ, ২০১৯ শনিবার

এমন থাবা দেবো কলিজাসহ বের হয়ে আসবে: সেলিম ওসমান

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনে মহজোট প্রার্থী সেলিম ওসমান বলেছেন, আমি শত্রুর সাথে আলিঙ্গন করতে জানি। শত্রু যদি বন্ধু হয়ে যায় তাহলে রক্তপাতের দরকার নেই। কিন্তু কাল কেউটার মতো শত্রু যদি বন্ধু হবার পর আবার ক্ষতি করতে আসে তাহলে মুক্তি যোদ্ধার হাতটা দিয়ে এমন থাবা দেব কলিজাসহ বের হয়ে আসবে।

বুধবার (১৯ ডিসেম্বর) বিকেল সাড়ে ৪টায় নগরীর খানপুর বার একাডেমী স্কুল সংলগ্ন এলাকায় মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আল্লার দোহাই নাটক বাজি করবেন না। ভালোবাসছি আমাকেও ভালোবাসার মতো ভালোবাসবেন, যদি না হয় তাহলে সামনে এসে বলেন আমি আপনাদের চ্যালেঞ্জ করলাম। চাপাবাজি বন্ধ করেন, লম্বা লম্বা বক্তব্যে কাজ হবে না। তিনি আরো বলেন, আমরা দল বুঝি না, মত বুঝি না। বুঝি শুধু একটাই, শেখ হাসিনার সরকার আরেক বার দরকার।

সেলিম ওসমান আরো বলেন, আমরা সবাই বুঝতে পেরেছি যে যেই উন্নয়ন বিগত ১০ বছরে হয়েছে সেটা স্বাধীনতার পরপর হবার দরকার ছিলো। আমরা মুক্তিযোদ্ধা হয়েও ২১ বছর জয় বাংলা বলতে পারি নাই। জয় বাংলা না বললে আমাদের রক্ত গরম হয় না। আমরা কাজ করতে পারি না। আমরা এখন সাধ্য মতো জয় বাংলা বলতে পারি।

তিনি বলেন, উন্নয়নের কি বলবো, উন্নয়ন দেখতে হলে ঢাকা যেতে হবে, চিটাগাং যেতে হবে, খুলনায় যেতে হবে। পদ্মা ব্রিজটা, নাসিম ওসমান ব্রিজটা চালু হোক, বন্দরে আরেকটা ফেরী চালু হোক। একটু সময় দেন আর ৫ বছর। এই ৫ বছরের সুযোগ দিলে বংলাদেশ আরো ২৫ বছর এগিয়ে যাবে। আমি আপনাদের মতো একজন সাধারণ মানুষ। অভাব কী আমি জানি।

মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবদিন টুলুর সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন, সাবেক সচিব ও নারায়নগঞ্জ বার একাডেমীর গভার্নিং বোডির সভাপতি শামীম চৌধুরী, মহানগর আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি চন্দন শীল, মহানগর বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও ১২নং ওয়ার্ডর কাউন্সীরার শওকত হোসনে শক্কু, সাবেক অধ্যক্ষ ও জেলা মহিলালীগের সভাপতি শিরিন পারভিন, সোনারগাও উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শামসুল ইসলাম ভুইয়া, মহানগর আওয়ামীলীগে সাংগঠনিক সম্পাদক হেলাল, জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক যুবলীগ নেতা সামসুজ্জামান ভাসানী।

বিষেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/হৃদয়

Categories: নারায়ণগঞ্জের খবর,রাজনীতি

Leave A Reply

Your email address will not be published.