মঙ্গলবার ৯ মাঘ, ১৪২৫ ২২ জানুয়ারি, ২০১৯ মঙ্গলবার

আমি এরশাদ সাহেবের সাথে নাই: সেলিম ওসমান

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সাংসদ একেএম সেলিম ওসমান বলেছেন, যাকে আপনারা সবাই সম্মান করেন যাকে আমরা সবাই পৌর পিতা বলি। আমার সাথে তার সম্পর্কটা ছিল অনেকটা বন্ধুত্বের। চাচা-ভাতিজার সম্পর্ক হলেও আমরা খুব রস ও আনন্দ নিয়ে কথা বলতাম। সে দিনগুলো আর কখনো ফিরে আসবে না। যারা এখানে আওয়ামী লীগ করেন তাদের কাছে আমি বিনীত অনুরোধ রাখবো যেখানেই যত গন্ডগোল থাকুক এই দেওভোগে যেন কোন গন্ডগোল না থাকে আওয়ামী লীগ নিয়ে। আমি আওয়ামী লীগের সাথেই আছি। আমি এরশাদ সাহেবের সাথে নাই।

মহান বিজয় দিবস ও জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে ১৬নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ ও সহযোগী অংগ সংগঠনের উদ্দোগে নগরীর শেখ রাসেল নগর পার্কে এক আলোচনা ও দোয়া মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, একদিন প্যারিসে গিয়াছিলাম। একটা ব্যানারে দেখলাম লেখা, বিড়াল যুদ্ধ হবে। বিড়াল যুদ্ধে আমেরিকান বিড়াল যুদ্ধ করে, রাশিয়ান বিড়াল যুদ্ধ করে। হঠাৎ করে শুনি, এখন যুদ্ধ করতে আসবে বাংলাদেশি বিড়াল। যুদ্ধ শুরু হইলো। দেখলাম আমেরিকান বিড়ালরে এক থাপ্পর বসায় দিলো বাংলাদেশি বিড়াল। আমি অবাক হয়ে বিড়ালকে গিয়ে জিজ্ঞেস করলাম, ও বিলাই তোর বাড়ি কই? বললো, নারায়ণগঞ্জ। আমি বললাম, নারায়ণগঞ্জে আইলি কেন? বললো, সুন্দরবনে খাওন পাই না তো তাই নারায়ণগঞ্জে আশ্রয় নিছিলাম। তারপর দেখলাম সেখানেও সব কিছু ভেংগে চুরে ফেলছে তাই বাংলাদেশের বিমান ধইরা প্যারিসে আইসা পড়ছি। আমি বললাম, তুই যুদ্ধ করলি কেমনে সেটা বল! বিড়াল বললো, কাউরে কইবেন না তো? আমি আসলে বাঘ। ছোট হইয়া গেছি না খাইতে খাইতে। এজন্যই আমি চুপচাপ বিড়াল সাইজা যুদ্ধ করতাছি।

তিনি আরো বলেন, এমন বাঘা দেখছেন নি? যারা মুক্তিযোদ্ধার ইজ্জত মারতাছে? এমন বাঘার জন্য মুক্তিযোদ্ধাদের এখন কিভাবে বিশ্বাস করবে মানুষ!

তিনি আরো বলেন, আমি নারায়ণগঞ্জ ক্লাবে বলেছিলাম নারায়ণগঞ্জের ৫টা আসনেই নৌকার প্রয়োজন। আমাদের মাঝে মাঝে একটু বিভেদ থাকে। বিভেদটা আওয়ামীলীগের মধ্যে বেশি হয়। এটা আপনারা মানেন আর না মানেন, বদনাম করেন আর না করেন আমার খুব কষ্ট হয়। কারণ আমার দাদা খান সাহেব ওসমান আলীর বায়তুল আমানে আওয়ামী লীগের জন্ম। আর দেভোগ হচ্ছে আওয়ামী লীগের দুর্গ। এটার মধ্যে কোন ভুল নাই।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাংসদ হোসনে আরা বাবলী, নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন, মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জি এম আরাফাত, ১৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নাজমুল আলম সজল,নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাফায়েত আলম সানি প্রমুখ।

বিষেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/হৃদয়

Categories: নারায়ণগঞ্জের খবর,রাজনীতি

Leave A Reply

Your email address will not be published.