মঙ্গলবার ৪ পৌষ, ১৪২৫ ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৮ মঙ্গলবার

হাজারো মানুষের দাবীতে মুখ খুলেনি সেলিম ওসমান, শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী করার অনুরোধ

বিশেরবাঁশী ডেস্ক: আগামী সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ-৫ আসন থেকে আবারো নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার দাবী জানিয়েও সেলিম ওসমানের মুখ থেকে নিজের প্রার্থী হওয়ার ব্যাপারে কোন কথা বের করতে পারেননি বন্দরের মানুষ। এ সময় তিনি নিজের প্রার্থী হওয়ার ব্যাপারে কোন কথা না বলে সকলের কাছে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আবারো প্রধানমন্ত্রী বানানোর জন্য বিনীত ভাবে অনুরোধ রেখেছেন। পাশাপাশি তিনি বলেছেন, আগামীতে আমি এমপি হই বা না হই, নির্বাচন করি বা না করি জীবনের শেষ নি:শ্বাস থাকা পর্যন্ত আমি বন্দরের মানুষের পাশে থাকবো। ভবিষ্যত প্রজন্মের জন্য কাজ করে যাবো। মৃত্যুর পর আপনাদের কাছে এই বন্দরে সাড়ে ৩ হাত জায়গা আপনাদের কাছে চাই। মৃত্যুর পরেও আমি বন্দরের মানুষের ভালবাসা পেতে চাই।

রোববার ১৫ সেপ্টেম্বর নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান রোববার দিনব্যাপী বন্দরে দুটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৫টি উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছেন। দুটি অনুষ্ঠানে স্কুলের শিক্ষার্থী, অভিভাবক, স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তি, জনপ্রতিনিধিবৃন্দ ও সকল রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরা মিলে প্রায় ৫ হাজার মানুষের সমাগম হয়ে ছিল। দুটি অনুষ্ঠানে উপস্থিত সকলের উদ্দেশ্যে এমপি সেলিম ওসমান প্রশ্ন রেখে ছিলেন আগামী সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ-৫ আসন থেকে তাঁর আবারো প্রার্থী হওয়া উচিত হবে কিনা, প্রার্থী হিসেবে বন্দরের সাধারণ মানুষ তাঁকে যোগ্য বলে মনে করেন কি না? সংসদ সদস্যের এমন প্রশ্নের উত্তরে উপস্থিত সকলে দুই হাত তুলে সেলিম ওসমানকে আবারো নারায়ণগঞ্জ-৫ আসন থেকে এমপি হিসেবে দেখতে চায় এবং তাঁর কোন বিকল্প নেই বলে ¯েøাগান দেন।

নির্বাচনে প্রার্থী হতে হাজার হাজার মানুষের দাবীর পরেও সেলিম ওসমান নিজের প্রার্থী হওয়ার বিষয়ে পরিস্কার কোন মন্তব্য না করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আবারো প্রধানমন্ত্রী করার জন্য সকলের প্রতি আহবান রেখে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আবারো প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করা হলে আগামী ৫ বছরে বাংলাদেশ আরো ২৫ বছর এগিয়ে যাবে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ বিশ্বে এগিয়ে যাচ্ছে। সারাবিশ্বের কাছে বাংলাদেশ এখন উন্নয়ন ও অর্থনীতি উন্নতির রোল মডেল হিসেবে আখ্যায়িত হয়েছে। বাংলাদেশের মানুষ দলমত নির্বিশেষে যদি শেখ হাসিনা নেতৃত্বাধীন সরকারকে সহযোগীতা করেন আগামী ২০৪১ সালের আগেই বাংলাদেশ একটি উন্নত দেশের তালিকায় স্থান করে নিবে বলে আমি বিশ্বাস করি। তাই বিশ্বের দরবারে বাংলাদেশকের উন্নত দেশের তালিকায় পৌছাতে আবারো আপনার শেখ হাসিনাকে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বানাবে। আর আমি এমপি থাকি বা না থাকি শরীরে শেষ বিন্দু রক্ত থাকা পর্যন্ত আমি আপনাদের সাথে আছি, সুখে দু:খে পাশে আছি।

বন্দর গালর্স স্কুল এন্ড কলেজের পরিচালনা কমিটির সভাপতি হাবিবুর রহমান হাবিব ও বন্দর কলোনী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সভাপতি আবুল জাহের এর সভাপতিত্বে উদ্বোধন অনুষ্ঠান দুটিতে আরো উপস্থিত ছিলেন, বন্দর উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মুকুল, বন্দর উপজেলার নির্বার্হী কর্মকর্তা পিন্টু বেপারী, বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) শাহীন মন্ডল, মহানগর জাতীয় পার্টির আহবায়ক সানা উল্লাহ সানু, জাপা নেতা গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, সিটি কর্পোরেশনের ২৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাইফুদ্দিন আহম্মেদ দুলাল প্রধান, ২২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সুলতান আহম্মেদ, ২১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হান্নান সরকার, ২০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর গোলাম নবী মুরাদ, মহানগর সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি জুয়েল হোসেন, মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হাসনাত রহমান বিন্দু, বন্দর থানা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুর রহমান কমল সহ গন্যমান্য ব্যক্তি ও সকল রাজনৈতিক দলের দলের স্থানীয় নেতৃবৃন্দরা।

বিশেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/ইলিয়াছ

Categories: জাতীয়

Leave A Reply

Your email address will not be published.