রবিবার ৮ আশ্বিন, ১৪২৫ ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ রবিবার

এবারেও থাকছে ঈদ উপহার, মঙ্গলবার বন্দর ঘাটে ভাসবে ফেরী

বিশেরবাঁশী ডেস্ক: পবিত্র ঈদ উল ফিতরের পূর্বে এমপি সেলিম ওসমান নারায়ণগঞ্জ-বন্দরবাসীর জন্য প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে ঈদ উপহার হিসেবে হাজীগঞ্জ-নবীগঞ্জ খেয়াঘাটে ফেরী সার্ভিস চালু করার ব্যবস্থা করে ছিলেন। সে সময় তিনি কথা দিয়ে ছিলেন অল্প কিছুদিনের মধ্যেই ৫নং খেয়াঘাট টু বন্দর ময়মনসিংহপট্টি দিয়ে আরো একটি ফেরী সার্ভিস চালু করা হবে। নানাবিধ জটিলতায় সেটি কালক্ষেপন হলে তিনি ঘোষণা দিয়ে ছিলেন পবিত্র ঈদ উল আযহার পুর্বে ৫নংঘাট টু বন্দর ময়মনসিংহপট্টি দিয়ে শীতলক্ষ্যা নদীতে ফেরী সার্ভিস চালু করা হবে। অবশেষে সেলিম ওসমানের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে নারায়ণগঞ্জ ও বন্দরবাসীর জন্য ঈদ উল আযহাতেও থাকছে ঈদ উপহার। জনগনকে দেওয়া সংসদ সদস্যের সেই প্রতিশ্রুতির বাস্তবায়নে বাকি আর মাত্র কয়েক ঘন্টা।

সেই মোতাবেক মঙ্গলবার ২১ আগস্ট সকাল ১১টায় শীতলক্ষ্যা নদীর পূর্বপাড় বন্দর খেয়াঘাট সংলগ্ন ময়মনসিংহপট্টিতে উদ্বোধন হচ্ছে আরো একটি ফেরী সার্ভিস। শহরের ৫নংঘাট থেকে বন্দর ময়মনসিংহপট্টি দিয়ে উক্ত ফেরী সার্ভিসটি চলাচল করবে। সোমবার বিকেলে এমপি সেলিম ওসমান ময়মনসিংহপট্টি এলাকায় উদ্বোধনের অপেক্ষায় থাকা ফেরী ঘাট সরেজমিনে পরিদর্শন করেন। এ সময় সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা তাঁকে ময়মনসিংহপট্টি থেকে ৫নংঘাট হয়ে পুণরায় ময়মনসিংহপট্টি পর্যন্ত ফেরী যোগে ঘুরিয়ে দেখান। পরিদর্শনে সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের তিনজন কর্মকর্তার কাজে সন্তুষ্ট হন এবং তাদেরকে কৃতজ্ঞতার সাথে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

এমপি সেলিম ওসমান জানান, ফেরীঘাটের রাস্তা সম্পন্ন হওয়া এবং ঘাটে ফেরী চলে আসার পরেও বিভিন্ন সমস্যার কারনে যখন ফেরী সার্ভিসটি চালু করার ব্যাপারে জটিলতা দেখা দেয়। ঠিক সেই মুহুর্তে আমার অনুরোধ এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের নির্দেশে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের এসডিও সাখাওয়াত হোসেন শামীম, সহকারী প্রৌকশলী ফিরোজ আলম এবং মেকানিক্যাল সহকারী প্রৌকশলী হাসানুল সাহেবেরা গত ৩দিন ধরে নারায়ণগঞ্জবাসীর জন্য দিনে রাতে অক্লান্ত পরিশ্রম করে প্রায় অসম্ভব কাজ করে সম্ভব করেছেন। তাদেরকে আমি ব্যক্তিগত ভাবে এবং নারায়ণগঞ্জবাসীর পক্ষ থেকে আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞতার সাথে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, মঙ্গলবার সকাল ১১টায় বন্দরের ময়মনসিংহপট্টিতে দোয়ার মাধ্যমে ফেরী সার্ভিসটির শুভ উদ্বোধন করার আয়োজন করা হয়েছে। নারায়ণগঞ্জ-বন্দরের সবাইকে উক্ত উদ্বোধনী দোয়ায় শরীর হতে এবং নারায়ণগঞ্জের উন্নয়নে অংশ নেওয়ার জন্য সকলের প্রতি বিনীতি অনুরোধ জানাচ্ছি। পাশাপাশি সকলের প্রতি অনুরোধ থাকবে নারায়ণগঞ্জের ২৪০ বছরের ইতিহাসে প্রথমবারের বন্দর এমন ফেরী চলাচলের ব্যবস্থা হচ্ছে। তাই ফেরী চলাচলে শুরুতে ছোটখাট সমস্যা বা ভুল ত্রুটি দেখা দিতে পারে। যেমনটা হাজীগঞ্জ-নবীগঞ্জ ঘাটের বেলায় হয়ে ছিল। সেক্ষেত্রে আমি নারায়ণগঞ্জ ও বন্দরবাসী সবাইকে ফেরী চালানোর দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সহযোগীতা করার জন্য বিশেষ ভাবে অনুরোধ রাখছি।

বিশেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/ইলিয়াছ

Categories: নারায়ণগঞ্জের খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.