শুক্রবার ২ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ ১৬ নভেম্বর, ২০১৮ শুক্রবার

একজন গর্বিত শিল্পসাধক মাহমুদুল হাসানের সঙ্গে কিছুক্ষণ

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: নব্বই দশকে সহপাঠীর পরামর্শে মাত্র ১৬০০ টাকা বেতনে কুড়িয়ান মালিকানাধীন একটি রফতানিমুখী প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে ঢাকা কলেজের তুখোড় ছাত্রনেতা মাহমুদুল হাসানের কর্মজীবন শুরু। তারপর হাতেগোনা কয়েকটি বিশ্বখ্যাত প্রতিষ্ঠানে সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করে অভিজ্ঞতার ঝুড়িটা করেছেন কানায় কানায় পূর্ণ ও সমৃদ্ধ।
চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার অদম্য সাহস,অসাধারণ মেধা,কর্মদক্ষতা,বিনয় আর সততার গুণে মাহমুদুল হাসান গার্মেন্টস জগতে একটি জনপ্রিয় নাম। বর্তমানে তিনি নারায়ণগঞ্জে একটি শীর্ষস্থানীয় সিআইপি মর্যাদাপ্রাপ্ত গার্মেন্টসের সফল নির্বাহী পরিচালক।
সদালাপী হাস্যোজ্জ্বল মাহমুদুল হাসান বিশ্বাস করেন, ইগো ত্যাগ করে যেকোন স্তরের কাজকে সম্মান করে নিজেকে যোগ্য করে তুলতে পারলে জীবনে সাফল্য আসতে বাধ্য । ৪৭’র তরুণ মাহমুদুল হাসান চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করতে ভয় পাওয়ার লোক যে নন তা তাঁর দীর্ঘ ২৪ বছর কর্মজীবনের পড়তে পড়তে স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। কথাপ্রসঙ্গে তিনি বলেন,সততাকে ধারন করা কাজপাগল লোকের কাজের অভাব হয় না।

বিষেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/হৃদয়

Categories: খোলা বাতায়ন,সারাদেশ

Leave A Reply

Your email address will not be published.