মঙ্গলবার ৫ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ ১৯ নভেম্বর, ২০১৯ মঙ্গলবার

হার দিয়ে টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরু টাইগারদের

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: ওয়ানডে সিরিজে হারের পর বীরের মতোই ঘুরে দাঁড়িয়েছে টিম ওয়েস্ট ইন্ডিজ। প্রথমে বাংলাদেশ দলের ব্যাটসম্যানদের পেসারদের গোলায় সীমিত রানের মধ্যে আটকে ফেলার পর, শেষ পেরেকটা টুকে দেন ক্যারিবীয় ব্যাটমসম্যান আন্দ্রে রাসেল ও স্যামুয়েলস। এতে তিন ম্যাচ সিরিজের ১-০ তে এগিয়ে গেল ক্যারিবীয়রা।

এদিকে বরাবরের মতোই দাপুটে ব্যাটিং করেছেন আন্দ্রে রাসেল। শুধু আইপিএল-ই নয়, জাতীয় দলেও যে রাসেল বিধ্বংসী তা আবারো প্রমাণ করলেন ক্যারিবীয় এই ব্যাটসম্যান। ২১ বলে ৩৫ রান করে দলকে সহজেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন রাসেল। আর সাকিবের ঘূর্ণিকে ওভার বাউন্ডারি মেরে ক্যারিবীয়দের জয় নিশ্চিত করেন রোভমান পাওয়েল।

শুরুতে উইন্ডিজ দলের রানের চাকাটা সচল করে দিয়ে যান আরেক বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান মারলন স্যামুয়েলস। করেন ১৩ বলে ২৬ রানের এক বিধ্বংসী ইনিংস। এইসময় ১০ বলে ১০ রান নিয়ে ক্রিজে ছিলেন আরেক বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান আন্দ্রে রাসেল। তবে পরের ১১ বলে করেন ২৫ রানের জয়ী ইনিংস।

এর আগে টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে শুরুতেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে বাংলাদেশ। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ছাড়া আর কেউই স্কোরকে বড় করতে পারেনি। শেষ পর্যন্ত ৯ উইকেট হারিয়ে ২০ ওভারে ১৪৩ রান তুলে বাংলাদেশ। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে জিতলে হলে করতে হতো ১৪৪ রান।

বুধবার ওয়ার্নার পার্কে টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের বিপক্ষে টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজের অধিনায়ক কার্লোস ব্রাথহোয়াইট। শরুতেই দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকার ফিরেন নামের পাশে কোনো রান যোগ না করেই। এরপর তৃতীয় উইকেট ৩৪ রান যোগ করেন সাকিব আল হাসান ও লিটন দাস। কিন্তু ষষ্ঠ ওভারে পর পর দুই বলে ফিরে যান লিটন দাস ও সাকিব আল হাসান। ৪৩ রানে ৪ উইকেট হারানো বাংলাদেশ মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ব্যাটে ভরসা খুঁজছিল।

এক প্রান্তে আগলে রেখে খেলে যাচ্ছিলেন মাহমুদউল্লাহ। কিন্তু ৩৫ রান করে ক্যারিবীয় বোলারদের সপ্তম শিকার তিনি। এর পর আর কোনো ব্যাটসম্যান দাঁড়াতেই পারেনি। আর টাইগারদের সীমিত রানের মধ্যে আটকে ফেলার কাজটা সেরেছেন কারসিক উইলিয়ামস। চার উইকেট তুলে নেন তিনি।

২০ ওভারে ১৪৪ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নামার যখন প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন স্যামুয়েলসরা, তখনই হানা দেয় বৃষ্টি। একপর্যায়ে ক্যারিবীয়দের টার্গেট দাঁড়ায় ১১ ওভারে ৯১ রান। তবে মামুলি টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই বিপর্যয়ে পড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। মুস্তাফিজুর রহমানের জোড়া আঘাতে কাঁপন ধরে উইন্ডিজ শিবিরে।

তবে ব্যাটিংয়ে নেমে প্রথমে কিছুটা দেখেশুনে খেলা শুরু করে স্যামুয়েলস ও আন্দ্রে রাসেল। স্যামুয়েলস আউট হওয়ার পর বিধ্বংসীরূপে দেখা দেয় রাসেল। একের পর এক বল পাঠাতে থাকেন সীমানার বাইরে। এতে জয়টাও সহজ হয়ে যায় ক্যারিবীয়দের। শেষপর্যন্ত টাইগারদের স্বপ্নে শেষ পেরেকটা টুকে দেন পাওয়েল।

বিষেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/হৃদয়

Categories: খেলাধূলা

Leave A Reply

Your email address will not be published.