শনিবার ৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ ১৭ নভেম্বর, ২০১৮ শনিবার

ঘাতক চালকের ফাঁসি চাইলেন মিমের গাড়িচালক বাবা বাসচাপায় নিহত শিক্ষার্থী দিয়া খান মিম

বিষেরবাঁশী ডটকম: রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কের কুর্মিটোলা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় বাসচাপায় শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের শিক্ষার্থী দিয়া খান মিম নিহতের ঘটনায় ঘাতক গাড়িচালকের ফাঁসি দাবি করেছেন তার বাবা জাহাঙ্গীর ফকির। তিনি নিজেও একজন গাড়িচালক। আজ রোববার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে এ দুঘর্টনায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হয়। উত্তরাগামী জাবালে নূর পরিবহনের একটি বাস মিরপুর ফ্লাইওভার থেকে নেমে অপর একটি বাসের সঙ্গে পাল্লা দিলে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতদের মধ্যে দিয়া খান মিম বরিশালের জাহাঙ্গীর ফকিরের মেয়ে। সে শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের এইচএসসি প্রথম বর্ষের ছাত্রী ছিল। দুই বোন ও এক ভাইয়ের মধ্যে মেঝ মিম বাবা-মার সঙ্গে মহাখালী দক্ষিণ পাড়ায় থাকে। মিমের বাবা জাহাঙ্গীর ফকির ঢাকা-চাঁপাইনবাবগঞ্জ রুটের একতা পরিবহনের চালক। আজ তার ঢাকা থেকে চাঁপাইনবাবগঞ্জে গাড়ি নিয়ে যাওয়ার কথা ছিল।

কিন্তু মেয়ের মৃত্যুর খবর পেয়ে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ছুটে যান বাবা জাহাঙ্গীর ফকির। তিনি বলেন, ‘যারা ঢাকায় গাড়ি চালায় তারা অদক্ষ। এরা আগে সিএনজি অটোরিকশা চালাত। গাড়ির মালিকরা লাইসেন্স ছাড়াই এদের চালক হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে।’ জাহাঙ্গীর ফকির বলেন, ‘আমি একজন গাড়িচালক একই সঙ্গে বাবাও। এভাবে যারা গাড়ি চালায় তাদর ফাঁসি হওয়া উচিত। যেসব মালিকরা এসব গাড়িচালক নিয়োগ দিয়েছে সরকারের তাদেরকে বিচারের আওতায় আনা উচিত।’

বিশেরবাশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/ইলিয়াছ

Categories: নারায়ণগঞ্জের খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.