বুধবার ৪ আশ্বিন, ১৪২৫ ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ বুধবার

অন্যায় অত্যাচার অবিচারের বিরুদ্ধে সত্য কথা বলবো : আইভী

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন, আমি বলি আল্লাহ, কেউ বলেন ভগবান আবার কেউ বলেন গড। কিন্তু সব কিছু মিলিয়ে একজন। একের মধ্যে সব একাকার। সেই একজনকে পাওয়ার জন্য আমাদের এতো সাধনা এতো কিছু। তাকে পেতে হলে তাকে সন্তুষ্ট করতে হলে ভালোবাসতে হবে মানুষকে। মানুষের পাশে গিয়ে দাঁড়াতে হবে। অত্যাচার অন্যায় অবিচারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে।
২২ জুলাই রোববার বিকেলে শহরের নিতাইগঞ্জ এলাকার বলদেব জিউর আখড়া প্রাঙ্গণে জগন্নাথদেবের উল্টো রথযাত্রা উপলক্ষে ধর্মীয় আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মেয়র আইভী বলেন, নারায়ণগঞ্জে যে আমাদের সম্প্রতির ভ্রাতৃত্বের যে বন্ধন সেটা বহুপূর্ব থেকে এখানে বিরাজমান। আর আমরা প্রজন্মের পর প্রজন্ম সেটাকে ধরে রেখেছি। এ কৃতিত্ব আমাদের নারায়ণগঞ্জের সকলের। হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান ও মুসলিম আমরা সবাই এক হয়ে যে যার উৎসব পালন করছি। আমার জন্মস্থান দেওভোগ সেটা হিন্দু অধ্যুষিত এলাকা। আমি দেখেছি বাবা, দাদা থেকে সবার সঙ্গে যে সম্পর্ক সেটা আমাদের মা বাবা ভাই বোনের মতোই। এখানে বিভক্তি করার মতো কিছু নাই যে কে কোন ধর্মের। আমি সেই মানবতায় বিশ্বাসী এবং সেই মানবতার ধর্মেই আমি বিশ্বাসী। আমাকে ছোট বেলায় আমার বাবা সেই শিক্ষাই দিয়েছে মানব ধর্মের কথা। আমি এখনও সেই ধর্মেই বিশ্বাসী।

তিনি আরো বলেন, জগতে যারাই এসেছেন সেটা যেই ধর্মেই আসুক না কেনো, হিন্দু, মুসলিম বা অন্য ধর্মে। এ বিশ্ব নিয়ে যিনি খেলেছেন যার সৃষ্টি এ বিশ্ব তার বার্তা নিয়েই আমাদের মধ্যে এসেছেন। আমাদের বুঝানোর জন্য, সঠিক পথ দেখানোর জন্য, সরল পথ দেখানোর জন্য ও মানবতার কথা বলার জন্য। শ্রীকৃষ্ণের অপর নাম জগন্নাথ আবার তারই অপর নাম গৌরাঙ্গ। এ যে তারা বিভিন্ন নামে আসে, বিভিন্ন ভাবে আসে, বিভিন্ন ফরমে আসে। কেন আসে? মানুষের কাছে আসে মানুষকে দীক্ষা দেওয়ার জন্য মানুষকে শিক্ষা দেওয়ার জন্য। প্রত্যেক ধর্মে এ মহাপুরুষরা যত উপরে উঠেছেন নবী রসুল বলেন, শ্রীকৃষ্ণ বলেন, তাদের কাছে কোন জাতপাত বা ধর্ম নাই। তাদের কাছে মানুষ আর মানুষ। মানুষের সেবা করাই যেন তাদের ধর্ম। তারা সেই ভাবেই দীক্ষা দিয়ে যায় সকলকে। আমি সেই দীক্ষায় দীক্ষিত হতে চাই আপনাদের কাছ থেকে শিখে যেখানে শুধু মানুষের জয় গান, মানুষের কল্যাণ, মানুষের মধ্যে কোন ভেদাভেদ থাকবে না। আর আমি তাদের পাশেই থাকতে চাই এবং তাদের হয়ে সেবা করতে চাই। সেবা করতে চাই আপনাদের আর আপনাদের সেবা করে এ প্রভুকে পেতে চাই যিনি এ বিশ্ব ভ্রমা- সৃষ্টি করেছেন তৈরি করেছেন সেই মহান আল্লাহকে। আল্লাহ সৃষ্টি করেছে এ পৃথিবীকে। আমি বলি আল্লাহ, কেউ বলেন ভগবান আবার কেউ বলেন গড। কিন্তু সব কিছু মিলিয়ে একজন। একের মধ্যে সব একাকার। সেই একজনকে পাওয়ার জন্য আমাদের এতো সাধনা এতো কিছু। তাকে পেতে হলে তাকে সন্তুষ্ট করতে হলে ভালোবাসতে হবে মানুষকে। মানুষের পাশে গিয়ে দাঁড়াতে হবে। অত্যাচার অন্যায় অবিচারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে।
ইসকনের উদ্দেশ্যে মেয়র আইভী বলেন, আমরা অন্যায়, অত্যাচার, অবিচারের বিরুদ্ধে সত্য কথা বলবো। মানুষ মানুষকে ভালোবাসবো। এ ভালোবাসা সৃষ্টি করার জন্য ইসকনের যে দায়িত্ব আপনার সেটা সঠিক ভাবে পালন করবেন।
নগরবাসীর কল্যান কামনা করে আইভী বলেন, কল্যান করুক প্রভু আমাদের সকলকে। মহান সৃষ্টিকর্তা আমাদের নারায়ণগঞ্জবাসীকে জুলুমের হাত থেকে, অবিচারের হাত থেকে, অন্যায়ের হাত থেকে রক্ষা করুক। আমাদের এ নারায়ণগঞ্জে শান্তি বর্ষিত হোক।
আন্তর্জাতিক কৃষ্ণভাবনামৃত সংঘ (ইস্কন) এর সদস্য ডা. দিলীপ কুমার দাসের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি আদিনাথ বসু, সিটি করপোরেশনের ১৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর অসিত বরণ বিশ্বাস, বাংলাদেশ ইসকনের সাধারণ সম্পাদক চারু চন্দ্র দাস, রাধাগোবিন্দ মন্দিরের অধ্যক্ষ হংসকৃষ্ণ দাস ব্রহ্মচারী প্রমুখ।

বিষেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/হৃদয়

Categories: নারায়ণগঞ্জের খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.