বুধবার ৪ আশ্বিন, ১৪২৫ ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ বুধবার

আমার ইচ্ছে না.গঞ্জে একটি হার্ট ফাউন্ডেশন করবো: আইভী

বিষেরবাঁশী ডটকম: নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াত আইভী বলেছেন, ‘সত্যিকার অর্থে আমি ডাক্তার হয়ে কিছুই করতে পারিনি। আমার বাবার ইচ্ছে ছিল, আমি ডাক্তার হয়ে মানুষের সেবা করি কিন্তু আমি কোথা থেকে কোথায় চলে গেলাম। এজন্য যখনই কোনো ডাক্তার আমার কাছে আসে আমি তাদের সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকতে চেষ্টা করি। আমার বাবা হার্ট এ্যাটাক করল। তাকে ঢাকা নিয়ে যাচ্ছিলাম আমরা কিন্তু হাসপাতাল পর্যন্ত পৌছাতে পারিনি। তখন থেকেই আমার ইচ্ছে ছিল নারায়ণগঞ্জে একটি হার্ট ফাউন্ডেশন তৈরি করব।’ বুধবার (১৮ জুলাই) সকালে মমতাময় নারায়ণগঞ্জ প্রকল্পের উদ্বোধন ও পরিচিতিমূলক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এ প্রকল্পের আওতায় প্যালিয়েটিভ রোগীদের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দেয়া হবে।

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াত আইভীর সভাপতিত্বে এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. কনক কান্তি বড়ুয়া। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন ওয়ার্ল্ড ওয়াইড হসপিস প্যালিয়েটিভ কেয়ার এলায়েন্স এর নির্বাহী পরিচালক স্টিফেন কনর, প্রোগ্রাম ম্যানেজার রুহিল র‌্যাচেল কসবি, বাংলাদেশ মেডিক্যাল এ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) নারায়ণগঞ্জ জেলা সভাপতি ডা. শাহনেওয়াজ চৌধুরী।

এ সময় মেয়র আরো বলেন, ‘একবার এক আমন্ত্রণে আমি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়েছিলাম। তখন বলেছিলাম আপনারা নারায়ণগঞ্জে শুরু করতে চাইলে আমি আপনাদের সাহায্য করব। এর আগে ড. নিজাম আমার সঙ্গে যোগাযোগ করলে আমি তাকে সানন্দে স্বাগত জানাই। শুধু নারায়ণগঞ্জে নয়, আমি চাইব বাংলাদেশের ৬৪টা জেলা এই সেবাটা পাক। অনেকের বাড়িতে বাবা মা পড়ে আছে দেখার কেউ নাই। ছেলেমেয়েরা দেশের বাইরে দেখার কেউ নাই অথবা ছোট ছোট বাচ্চা দূরারোগ্য রোগে আক্রান্ত কিন্তু দেখার কেউ নাই। এই ধরনের পেসেন্টগুলোকে সবচেয়ে বেশি প্রায়োরিটি দিয়ে এখানে যারা কাজ করতে চাচ্ছেন তারা করবেন। সবাইকে সহযোগিতা করতে হবে। কেননা আপনাদের সহযোগিতা ছাড়া এ কাজগুলো সম্ভব না। গোদনাইলে সিটি কর্পোরেশনের জায়গা আছে। তারা বিনিয়োগ করলে সেখানে হাসপাতাল তৈরিতে আমরা সাহায্য করবো।’

উল্লেখ্য, নিরাময় অযোগ্য জীবিত সীমিত রোগে আক্রান্ত রোগীর জীবনের প্রান্তিক সময়টুকু ভোগান্তি বিহীন, যন্ত্রনা বিহীন নিরাপদ করার লক্ষ্যে চিকিৎসা সেবার যে জ্ঞান তাই প্যালিয়েটিভ কেয়ার নামে পরিচিত। ‘মমতাময় নারায়ণগঞ্জ প্রকল্পে’র মাধ্যমে বিনামূল্যে রোগীদের চিকিৎসা সেবা দেওয়া হবে। প্রকল্পের আওতাধীন মেডিসিন কোম্পানিগুলোর ঔষধ বিনামূল্যে প্রদান করা হবে। চিকিৎসা সেবার পাশাপাশি কাউন্সিলিংও করা হবে।

বিশেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/ইলিয়াছ

Categories: নারায়ণগঞ্জের খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.