শনিবার ৭ আশ্বিন, ১৪২৫ ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ শনিবার

আজ ক্রোয়েশিয়া-ইংল্যান্ডের অগ্নিপরীক্ষা

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: ইতিমধ্যে রাশিয়া বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠেছে ফ্রান্স। দ্বিতীয় দল হিসেবে কে হবে ফ্রান্সের প্রতিপক্ষ তা নির্ভর করছে আজকের ম্যাচের উপর। আজ দ্বিতীয় সেমিফাইনালে ক্রোয়েশিয়া-ইংল্যান্ডের অগ্নিপরীক্ষা। দুই দলের কাছেই এর তাত্পর্যটা সমান। কেননা দীর্ঘ অপেক্ষার পরে আজ স্বপ্ন জয়ের পথে সামনা-সামনি দুই দল। প্রত্যাশা একটাই খালি হাতে না ফিরে যাওয়া। মস্কোর লুজনিকি স্টেডিয়ামে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ সময় রাত বারোটায়।

ফিফা বিশ্বকাপের ২১তম আসরটা নতুনদের জন্যই। একে একে ফেভারিটদের বিদায় আর তারুণ্য শক্তির আধিপত্যে। সব মিলিয়ে হয়তো নতুনদের ছোঁয়ার অপেক্ষাতেই আছে বিশ্বকাপের সোনালি শিরোপা।

দীর্ঘ ৫২ বছর আগে একবার শিরোপার স্বাদ নিতে পেরেছিল ইংরেজরা। সেই ১৯৬৬ সালে। সেবার দেশের মাটিতে, লন্ডনের ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে রানী এলিজাবেথের হাত থেকে ট্রফি নিয়েছিলেন স্যার ববি মুর। এরপর ৫২টি বছরের অপেক্ষা। ১৯৯০ সালে সর্বশেষ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে খেলেছিল দেশটি। আজ আবারও আরো একবার সেই স্বপ্নে দুয়ারে দাড়িয়ে সাউথগেটের শিষ্যরা। সাউথগেটের নবীণ তারুণ্য শক্তি কি পারবে সেই স্বপ্ন সত্যি করতে? পারবে কি আসরে চমক লাগানো ক্রোয়েশিয়াকে হারিয়ে কে হারিয়ে ফাইনাল মঞ্চে যেতে!

ইংলিশদের ন্যায় বিশ্বকাপের পিপাসায় আছে ক্রোয়াটরাও। স্বাধীন দেশ হিসেবে ক্রোয়েশিয়ার প্রথম অংশগ্রহণ ১৯৯৮ সালে, সেবারই উঠেছিল সেমিফাইনালে। এরপর কেটেছে ২৮টি বছর। ফুটবলের এই বিগ মঞ্চে এই ২৮ বছর নিজেদের তেমন ভাবে মেলে ধরতে পারেনি ক্রোয়েশিয়া। তবে দীর্ঘদিন পরে তরুণ তারকাখচিত দলটি আসরের শুরু থেকেই দেখিয়েছে নিজেদের চমক। দারুণ পারফর্ম করেই উঠেছে সেমির মঞ্চে। লক্ষ্য একটাই প্রথমবারের মত স্বপ্নের শিরোপা ছুঁয়ে দেখা। স্বপ্ন পূরণের এতটা কাছে এসে ফিরে যেতে চায়না মদ্রিচ-রাকিটিচরা। ইংলিশদের হারিয়ে ফাইনাল টিকিট পাওয়ার জন্যই বদ্ধপরিকল্প দালিচ শিষ্যরা।

বিশ্বকাপে এবার প্রথমবারের মতো মুখোমুখি হতে যাচ্ছে ইংল্যান্ড ও ক্রোয়েশিয়া। দল দুইটি প্রথমবার মুখোমুখি হয় ১৯৯৬ সালে। সেই ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র হয়েছিল। ইউরোপের এই দল দুইটি সর্বশেষ মুখোমুখি হয়েছে ২০০৯ সালে। সেই ম্যাচটি ৫-১ ব্যবধানে জিতেছিল ইংলিশরা। এই ম্যাচটি ছিল ২০১০ বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের ম্যাচ। অতীত পরিসংখ্যানে ইংলিশরা এগিয়ে থাকলেও বর্তমান পারফরম্যান্সে পিছিয়ে নেই ক্রোয়াটরাও। তাইতো আজ লড়াই হবে সমানে সমানে।

সবকিছু মিলিয়ে বিশ্বকাপের ফাইনালের আগে নিঃসন্দেহে একটি কঠিন ম্যাচের মহারণ হতে যাচ্ছে আজ। দুই ইউরোপিয়ান পরাশক্তির মধ্যেকার এই অগ্নিপরীক্ষা শেষে কে যাবে ফাইনাল মঞ্চে তা এখন দেখার অপেক্ষা!

বিষেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/হৃদয়

Categories: খেলাধূলা

Leave A Reply

Your email address will not be published.